সাংবাদিক কাজলের অপহরণে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা কারা?

সাংবাদিক কাজলের অপহরণে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা কারা?
সাংবাদিক কাজল

poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২২ মার্চ ২০২০, ১৬:৩১

নিখোঁজ সিনিয়র ফটোসাংবাদিক ও ‘পক্ষকাল’ ম্যাগাজিনের সম্পাদক শফিকুল ইসলাম কাজল যেদিন অপহৃত হন, সেদিন তিনি অফিসে পৌঁছানোর পরতার হাতিরপুল কার্যালয়ের সামনে শেষ বিকেলে কয়েকজন ব্যক্তিকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজে ওই ব্যক্তিদের কাজলের মোটরসাইকেল নাড়াচাড়া করতে দেখা যায়। তিন ঘণ্টা পর তিনি যখন তার কার্যালয় ছেড়ে বেরিয়ে আসেন, তখন ওই ব্যক্তিরাও ঘটনাস্থল থেকে চলে যান।

গতকাল শনিবার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ওই ঘটনার সময় সিসি ক্যামেরায় ভিডিও ফুটেজসহ একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দক্ষিণ এশিয়া ক্যাম্পেইনার সাদ হাম্মাদি জানান, সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়া অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের সন্দেহজনক আচরণ স্পষ্টতই প্রমাণ করে কাজলের বিরুদ্ধে পুলিশি তদন্ত শুরুর মাত্র একদিন পরই তাকে অনুসরণ করা হচ্ছিল। ওই দিনের পর থেকেই ফটোসাংবাদিক কাজলের আর দেখা মেলেনি। প্রশ্ন উঠেছে, সেই অজ্ঞাত ব্যক্তিরা কারা? যদি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে রাখা হয়ে থাকে, তাহলে দ্রæত তাকে মুক্তি দিতে আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আহŸান জানাচ্ছি।

প্রকাশিত সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, ঘটনার দিন ১০ মার্চ বিকেল ৫টা ৫৯ মিনিট থেকে ৬টা ৫ মিনিটের মধ্যবর্তী ৬ মিনিট সময়ে তিনজন ব্যক্তি আলাদা আলাদাভাবে মোটরবাইকটির কাছে যায়। দেখে মনে হচ্ছে, ওই ব্যক্তিরা মোটরসাইকেলে কিছু একটা লাগাচ্ছেন। এরপর ৬টা ১৯ মিনিটে কাজলকে অন্য একজন ব্যক্তির সঙ্গে অফিস থেকে বের হয়ে নিজের বাইকের পাশ দিয়ে হেঁটে যেতে দেখা যায়। পরে তিনি ফিরে আসেন এবং সন্ধ্যা ৬টা ৫১ মিনিটে একা বাইকে চড়ে চলে যান। এরপর তাকে আর দেখা যায়নি। তিনি যখন মোটরসাইকেল নিয়ে বেরিয়ে যান, তার পেছনে অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে ছুটতে দেখা গেছে।

১০ মার্চ দুপুরের পর শফিকুল ইসলাম কাজল তার পুরান ঢাকার বকশীবাজারের বাসা থেকে হাতিরপুলের দৈনিক পক্ষকাল কার্যালয়ের উদ্দেশে বের হন। তিনি হাতিরপুলের মেহের টাওয়ারের কার্যালয়ে বিকেল সোয়া চারটার দিকে পৌঁছান। এদিন সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে কাজলের আর কোনো হদিস মিলছে না। এ ঘটনার পরদিন তার স্ত্রী জুলিয়া ফেরদৌসী চকবাজার থানায় নিখোঁজ হওয়ার সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। আদালতের হস্তক্ষেপে গত বুধবার রাতে চকবাজার থানায় শফিকুল ইসলামের ছেলে মনোরম পলক অপহরণের মামলা করেন।

জানতে চাইলে চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুদ হাওলাদার বলেন, অ্যামনেস্টি একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে বলে তারা শুনেছেন। তবে ওই ফুটেজ থেকে কাউকে শনাক্ত করা হয়নি। ভিডিওটি বিশ্লেষণ করার পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট বিষয়ে খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে।

যুব মহিলা লীগের নরসিংদীর বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া গ্রেফতার পরের রিমান্ডে থাকা অবস্থায় ফটোসাংবাদিক কাজল তার ফেসবুকে কয়েকটি পোস্ট দেন। এতে আওয়ামী লীগের ও যুব মহিলা লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতার ও ঊধ্বর্তন কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তার ছবি ছিল। এ ঘটনার পর গত ৯ মার্চ মানবজমিন সম্পাদক মতিউর রহমান ও শফিকুল ইসলাম কাজলসহ ৩২ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শেরে বাংলা নগর থানায় মামলা দায়ের করেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শেখ। পরদিন সন্ধ্যা থেকে নিখোঁজ রয়েছেন সিনিয়র ফটোসাংবাদিক কাজল।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads






Loading...