সংবাদপত্রের উন্নয়নে এফবিসিসিআইয়ের সহযোগীতা চায় নোয়াব

সংবাদপত্রের উন্নয়নে এফবিসিসিআইয়ের সহযোগীতা চায় নোয়াব
সংবাদপত্রের উন্নয়নে এফবিসিসিআইয়ের সহযোগীতা চায় নোয়াব - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ২১:০৪

সংবাদপত্র শিল্পের উন্নয়ন এবং এই শিল্পের সংকট আলোচনাপূর্বক সমাধানের জন্য এফবিসিসিআই এর সহযোগীতা চেয়েছে সংবাদপত্র মালিকদের সংগঠন নোয়াব।

বৃহস্পতিবার এফবিসিসিআই ভবনে এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম ও নেয়াবের নেতৃবৃন্দের এক বৈঠক সম্পন্ন হয়। সেখানে এফবিসিসিআই-কে এই আহ্বান জানানো হয়।

এ সময় নোয়াবের সভাপতি এবং দৈনিক প্রথম আলো’র প্রকাশক ও সম্পাদক মতিউর রহমান বলেন, বর্তমানে সংবাদপত্র শিল্প অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে কঠিন সময় পার করছে। এটি সেবা শিল্প হওয়া সত্ত্বেও এর কর্পোরেট ট্যাক্স ৩৫ শতাংশ, যা এই শিল্পের অগ্রগতির জন্য একটি বড় বাধা। এ অবস্থায় টিকে থাকতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে শিল্পটিকে।

অধিকাংশ সংবাদপত্রকেই ভর্তুকি দিয়ে চালাতে হচ্ছে বলেও জানান নোয়াব সভাপতি।

নোয়াব সভাপতি জানান, নতুন ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের কারণে সংবাদপত্র শিল্প চাপের মধ্যে পড়েছে। এই শিল্পের আয় বাড়ানো, কর্পোরেট ট্যাক্স কমিয়ে ১০ শতাংশ করাসহ শিল্পটির উন্নয়নের জন্য সরকারের সঙ্গে নোয়াবের যোগাযোগ বৃদ্ধির সুযোগ তৈরি করে দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সরকার যাতে এই শিল্পকে বন্ধু হিসেবে ভাবে সেই প্রত্যাশা করেন নোয়াব নেতৃবৃন্দ।

নোয়াব নেতৃবৃন্দের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, সরকারের সাথে সংবাদপত্র শিল্পের কোনো মালিকদের যদি দূরত্ব থাকে, সেটি এফবিসিসিআই-এর ম্যান্ডেট বহির্ভূত। যেহেতু ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়নের প্রক্রিয়ার শুরু থেকে এফবিসিসিআই এর সম্পৃক্ততা ছিলো না, তাই এই বিষয়টির করণীয় মূল্যায়ন করা যেতে পারে। তবে, এই শিল্পের অর্থনৈতিক স্বার্থে যেমন- ভ্যাল্যু চেইনের কাঠামো ইত্যাদি বিষয়গুলো নিয়ে নোয়াবের সাথে যৌথভাবে পর্যালোচনা করা যেতে পারে।

বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই সহ সভাপতিবৃন্দ মো. সিদ্দিকুর রহমান, হাসিনা নেওয়াজ এবং দিলীপ কুমার আগারওয়ালা, এফবিসিসিআই পরিচালক মুনির হোসেন, সমকাল প্রকাশক এ কে আজাদ, ডেইলি স্টার সম্পাদক ও প্রকাশক মাহ্ফুজ আনাম, মানবজমিন-এর প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads





Loading...