একপিস গোলাপের দাম বনানীতে ১শ’, শাহবাগে ৮০

মানবকণ্ঠ
ছবি - সংগৃহীত।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৫১,  আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:০৭

ভালোবাসার প্রকাশ হিসেবে ফুল উপহার দেওয়া বহুল প্রচলিত রীতি। ভালোবাসা দিবসে তাই প্রিয়জনের মুখে হাসি দেখতে ফুলের চেয়ে ভালো উপহার বুঝি নেই। একদিকে ভালোবাসার রঙ, অন্যদিকে ফুল হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ- এ দুয়ে মিলে গোলাপ বেশ দাপুটে।

এবার ভালোবাসা দিবসে রাজধানীর শাহবাগের ফুলের দোকানে ভিড় দেখার মতো। চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় একটি গোলাপের জন্য ক্রেতাকে ব্যায় করতে দেখা যাচ্ছে ৮০ টাকা পর্যন্ত। আর বনানীতে একটি গোলাপ কিনতে খরচ করতে হচ্ছে ১০০ টাকা পর্যন্ত।

শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের প্রথম প্রহরে শাহবাগের ফুলের মার্কেট ঘুরে ফুলের দাম সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়।

ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপের বিক্রেতা সবুজ মিয়া বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন। গত দু’দিন ধরেই ঘুম নেই চোখে। জানান, গোলাপেরই চাহিদাই সবচেয়ে বেশি। প্রতি পিস লাল গোলাপের দাম এখন ১০ থেকে ৮০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে।

সবুজ মিয়া জানান, তবে একদিন আগের ফুল (তাজা নয় এমন) কিনলে সেটি ৫ টাকাতেও কেনা সম্ভব।

গত কয়েক বছর ধরেই রাজধানীর ফুলের বাজারে গ্লাডিওলাসের চাহিদা বাড়ছে। বিভিন্ন রংয়ের প্রতি ডাটা গ্লাডিওলাসের দাম পড়বে ১৫ থেকে ২০ টাকা।

ফুলের বাজারে সবচেয়ে দামি ফুল দেখা যায় লিলি। চায়না থেকে আমদানি করা এক ডাটা সাদা-সবুজের লিলি ফুলের মূল্য ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা। চায়না থেকে আমদানি করা ফুলের মধ্যে রয়েছে অর্কিডও। বড় অর্কিডের দাম পড়বে ২২০ থেকে আড়াই শ’ টাকা। আর ছোট অর্কিডের দাম ৮০ থেকে ১০০ টাকা।

চায়না কান্ডিশন ফুলও এখন জনপ্রিয়। ফ্রেস ফ্লাওয়ার শপের বিক্রেতা আকবর জানান, প্রতি ডাটা ফুলের দাম ৪০ টাকা। লাল টকটকে ফুলগুলোকে দেখতে সাগরতলের প্রবালের ওপর দৌড়ানো শৈবালের মতোই লাগে কিছুটা।

বিভিন্ন রংয়ের জারব্রা ফুলের চাহিদা রয়েছে এখন। কিছুটা ছোট সূর্যমুখীর মতো দেখতে এই ফুলের দাম প্রতি ডাটা ২০ থেকে ৩০ টাকা।

অনেক নারীই এ দিনটিতে খোপায় বেলি ফুলের মালা গাঁথতে পছন্দ করেন। প্রতিটি মালার দাম পড়ছে ২০ থেকে ৩০ টাকা। গাঁদা ফুলের মালার জন্যও একই অর্থ খরচ করতে হবে ক্রেতাকে।

এছাড়াও রয়েছে জিনিয়া, চন্দ্রমল্লিকা। এগুলোর দাম দিনের বিভিন্ন প্রহরে চাহিদার ওপর নির্ভর করে নির্ধারিত হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/জেএস/এইচকে





ads







Loading...