জেনে নিন শুক্রবারের রাশিফল

মানবকণ্ঠ

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ১১:৩৩

জ্যোতিষশাস্ত্রীরা বলেন প্রত্যেক দিনের গ্রহ নক্ষত্রের সঙ্গে নিদারুণ জড়িয়ে আছে ভাগ্যের ওঠাপড়া। নিজেই পরখ করে নিন আজকের দিনটিতে আপনার ভাগ্যের শিকে খুলবে কিনা? নাকি ঘনিয়ে আসতে পারে বিপদ? জেনে নিন কী বলছে রাশিফল

মেষ (২১ মার্চ – ২০ এপ্রিল):
ঘরোয়া জীবনে কিছু সমস্যা থাকবে, তবে পেশাগত জীবনে প্রচুর সফলতা পাবেন। কিন্তু বেশি উত্সাহিত হবেন না, কারণ খুশি ধীরে ধীরেই আসবে। এই সময় ব্যবসায়ীদের কোনো কিছুতেই বিনিয়োগ করা ঠিক হবে না। শেয়ার-বাজার থেকে দুরে থাকায় ঠিক হবে।

বৃষ (২১ এপ্রিল – ২০ মে):
প্রেম-জীবন পুরোপুরি রোমাঞ্চময় নাও হতে পারে আর সম্পূর্ণ যৌন-সুখ নাও পেতে পারেন। অপ্রয়োজনীয় কথায় মাথা না ঘামানোই ভালো। সবসময় ভার হয়ে থাকার স্বভাব আপনাকে ক্ষতি করতে পারে। অগাস্ট মাসের পর জীবনে উজ্জলময় সময় আসলেও পুরো বছরই আপনাকে সাবধানে থাকার আবশ্যকতা আছে।

মিথুন (২১ মে – ২০ জুন):
জীবনসাথীর সাথে যদি সত্যিকারের প্রেম আর স্নেহ থাকে তো সবকিছুই অবাধ থাকবে। এই বছর বৈবাহিক জীবন আনন্দময় থাকবে আর নিজের প্রিয়র সাথে সুখেভরা সময় কাটাবেন। চাকুরিজীবিরা কিছু অসুবিধার সম্মুখীন হতে পারেন। ব্যবসায়ীদের তত্ক্ষনাত লাভ না হলেও ধীরে ধীরে লাভের মুখ অবশ্যই দেখতে পাবেন। প্রেম-সম্বন্ধে তীব্রতা আসবে, যা আপনাকে সময়-সময় আনন্দিত করে তুলবে।

কর্কট (২১ জুন – ২০ জুলাই):
ভেতর থেকে যত খুশি থাকবেন ততই আপনি সফল হবেন। প্রেমীর প্রতি আপনার ঔদাসীন্য এমন কিছু সম্পর্কের দিকে ইশারা করছে যা আপনার জন্য ঠিক না। নিজের প্রেম-জীবনের প্রতি ঝোঁক না দেওয়ার জন্য এমন হতে পারে। যদিও আপনি অনেক বুদ্ধিমান।

সিংহ (২১ জুলাই – ২১ আগস্ট):
গ্রহেরা বলছে যে এই বছরের বেশির ভাগ সময়ই আপনার অনুকুল থাকবে। প্রেম এবং স্নেহের জন্য জীবনসাথীর সাথে ঘনিষ্টতা বাড়বে, যেটা আপনাদের পারস্পরিক সামন্জ্যস্যের ওপর নির্ভর করছে। আপনার আত্ম্য়ীদের সাথে জীবনসাথীর সম্পর্ক মধুর থাকবে।

কন্যা (২২ আগস্ট – ২২ সেপ্টেম্বর):
সাস্থ্যের প্রতি নজর দিন, পৌষ্টিক খাবার খান আর নিয়মিত ভাবে ব্যয়াম করুন; তাই কথাতেই আছে ‘সুস্থ দেহতেই সুস্থ মন বাস করে’। খরচের দিকটা একটু নিয়ন্ত্রণ করুন, কারণ আয় কিছুটা কম হওয়ার সম্ভাবনা আছে। আর্থিক সংকটের সময় ঋণ নেওয়া থেকে দুরে থাকুন; এই সময় সাধারণত লোকেরা ব্যাকুল হয়ে অবৈধ ভাবে টাকা অর্জন করার চেষ্টা করে, যেটা আপনাকে কখনই করা উচিত হবে না।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর – ২১ অক্টোবর):
সাস্থ্যের দিকে সাবধান থাকার দরকার আছে, কারণ কোনো বড়সড় রোগের আপনি শিকার হতে পারেন। আমদানীর দিকেও সতর্ক থাকতে হবে। টাকা-পয়সার ব্যাপারে চোখ বন্ধ করে কারো প্রতি বিশ্বাস করাটা ঠিক হবে না, এতে আপনার ক্ষতিই হবারই সম্ভাবনা বেশি। চোখ-কান সবসময় খোলা রাখুন, কারণ কিছুলোক আপনার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করতে পারে।

বৃশ্চিক (২২ অক্টোবর – ২০ নভেম্বর):
চাকরি বদলানোর জন্য এই বছর সব থেকে ভালো, তাই চেষ্টা করতে থাকুন। এই রাশির কিছু জাতকরা নতুন দায়িত্ব পেতে পারেন আর মাইনে বাড়ারও সম্ভাবনা আছে। আপনার জীবনের প্রতিটি দৃষ্টিভঙ্গি সঠিক দিশার ওপর দিয়ে যাবে। জীবনসাথী আর নিকট আত্ম্য়ীদের সাথে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক থাকবে।

ধনু (২১ নভেম্বর – ২০ ডিসেম্বর):
আপনার ওজন বাড়ার সম্ভাবনা আছে। এটাকে নিয়ত্রিত রাখার চেষ্টা করুন, ভারী-খাবার (অপৌষ্টিক) থেকে দুরে থাকায় ভালো। মদ্যপান থেকে দুরত্ব বজায় রাখাই ঠিক হবে। টাকা-পয়সায় বৃদ্ধির সাথে সাথে আপনি সেটাকে জমাতেও সক্ষম হবেন। আপনি কোথাও চাকরি করেন অথবা নিজের ব্যবসা করেন, যেকোনো দিকেই আপনি লাভের মুখ দেখবেন।

মকর (২১ ডিসেম্বর – ২০ জানুয়ারি):
দুর্ভাগ্যবশত জীবনসাথীর সাথে মধুর সম্পর্কে বাধা দেখা দিতে পারে। আত্মীয়-পরিজনদের সাথেও কিছু কথা-কাটাকাটি হতে পারে। জীবনের প্রতিটি দিকই আপনাকে যন্ত্রণা দিতে পারে, সাস্থ্যও প্রভাবিত হতে পারে। সাস্থ্যের খেয়াল রাখা আপনার নিজের হাতে, তাই এই দিক দিয়ে সচেতন থাকুন। অর্থের দিক দিয়ে কিছু ক্ষতি হবার সম্ভাবনা আছে।

কুম্ভ (২১ জানুয়ারি – ১৮ ফেব্রুয়ারি):
সৌহার্দতার অভাব দেখা যেতে পারে যাঁরা একান্নবর্তী পরিবারে থাকেন। আবার অপরদিকে ছোট পরিবারে সুখের পরিবেশ থাকবে, মানে এই ক্ষেত্রে ‘ছোট পরিবার সুখী পরিবার’ এর কথাটা সঠিক প্রমান হবে। যদি জীবনসাথীর ওপর কোনরকম সন্দেহ না করেন তো আপনার জন্য ভালো হবে। এই বছর তুলার রাশির কিছু জাতকের পরিবারের সাথে সম্পর্ক খারাপ হতে পারে।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি – ২০ মার্চ):
নিজের জীবনে অনবরত চড়াই-উতরাই আসবে। ছেলে-মেয়েদের ব্যবহারে কিছুটা পীড়িত হতে পারেন। আলোস্যতা থেকে দুরত্ব বজায় রাখুন। আমোদ-প্রমোদ আর মনোরঞ্জনে সময় পার করতে থাকলে আপনার কাজের ওপর এটার নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। ধন-সম্পত্তিকে সুরক্ষিত রাখুন আর অগাস্ট পর্যন্ত যতটা পারেন সঞ্চয় করুন। এই মাসের পরই কথাও নিবেশ করা ঠিক হবে।

মানবকণ্ঠ/আরবি




Loading...
ads





Loading...