সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ব্র্যান্ডিং

সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্র্যান্ডিং - ছবি: সংগৃহীত।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:১৮

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পরিচ্ছন্ন উপস্থিতি কেন জরুরি

লিংকডুইন, ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামসহ অন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম (সোশ্যাল মিডিয়া) পার্সোনাল ব্র্যান্ডিংয়ের অনন্য মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে। যেমন ধরুন, লিংকডুইন পেশাজীবীদের জন্য একটি চমৎকার জায়গা। এখানে একজন ব্যক্তির শিক্ষাগত যোগ্যতা, কর্মপ্রতিষ্ঠানের নাম, কাজের বিবরণ, বিশেষ স্বীকৃতিসহ বিভিন্ন তথ্য দেয়া থাকে। লিংকডুইন থেকেই অনেক প্রতিষ্ঠান তাদের যোগ্য কর্মী খুঁজে নেয়। তাই ভালোভাবে একটি লিংকডুইন প্রোফাইল তৈরি করে অন্যদের সঙ্গে যুক্ত হলে ক্যারিয়ারে নতুন সুযোগ তৈরির সম্ভাবনা থাকে। তাছাড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের কর্মী নিয়োগের আগে কর্মীর ফেসবুকসহ অন্য সোশ্যাল মিডিয়ার প্রোফাইল ঘেঁটে তার কার্যকলাপ, আচরণ ও চালচলন সম্পর্কে জানতে চেষ্টা করে।

নিজের ব্র্যান্ডিং করবেন যেভাবে
নিজেকে একটি ব্র্যান্ড হিসেবে উপস্থাপন করতে চাইলে অ্যাকাউন্টে নিজের সম্পর্কের পর্যাপ্ত নির্ভুল তথ্য থাকতে হবে। যেন আপনার প্রোফাইলে কেউ প্রবেশ করলে আপনার সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে পারেন। আর একাধিক প্ল্যাটফর্মে তৈরি করা প্রোফাইলগুলোতেও যেন সামঞ্জস্য থাকে। যেমন ফেসবুক, টুইটার, লিংকডুইনসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে সার্টিফিকেটের নামে ও একই নামে অ্যাকাউন্ট তৈরি করা, প্রোফাইল ছবিটি একই রাখা, যেন সবাই সহজে চিনতে পারে, নিজের সম্পর্কে একই রকম তথ্য দেয়া ইত্যাদি।

নিয়মিত পোস্ট করা
নিজেকে সবার সঙ্গে ভালোভাবে যুক্ত রাখতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিয়মিত পোস্ট করা উচিত। আপনার দক্ষতা ও আগ্রহ আছে, এমন দুই-তিনটি বিষয়বস্তু নির্বাচন করে বৈচিত্র্যময় পোস্ট করুন। ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিদিন একটি পোস্ট দেয়া আদর্শ। বিভিন্ন প্রশিক্ষণ, আলোচনা, কর্পোরেট অনুষ্ঠানে নিজের সক্রিয় উপস্থিতির বিষয় পোস্ট করা যায়। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন শিক্ষামূলক কর্মশালা ও স্বীকৃতির বিষয় পোস্ট করতে পারেন। আর লিংক শেয়ারের সময় সচেতনতামূলক, শিক্ষামূলক ও স্বাস্থ্যসেবামূলক লিংক শেয়ার করা উচিত। এতে নিজের দায়িত্বশলীতা ও সচেতনতার প্রকাশ পায়।

গ্রুপে আলোচনা করা
সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন গ্রুপে যুক্ত হয়ে নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপনের সুযোগ থাকে। একটি গ্রুপের সবার কিছু সাধারণ আগ্রহ বা মনোযোগের বিষয় থাকে। সেখানেও নিজেকে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য হিসেবে উপস্থাপন করা যায়।

সবার কাজে আসে, এমন পোস্ট দেয়া
আপনাকে তখনই সবাই ফলো করবেন, যখন আপনার কথা বা পোস্ট অন্যদের উপকারে আসবে। তাই প্রয়োজনীয় কনটেন্ট পোস্ট করুন। সবার আগ্রহের বিষয় জানতে প্রশ্ন করতে পারেন। নিজের ভালো কাজগুলো সুন্দরভাবে উপস্থাপন করুন। সোশ্যাল মিডিয়ার নানা খারাপ দিকের কথা প্রায়ই শুনি।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads




Loading...