লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যায় ৪১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৪

২০২০ সালের ২৭ মে লিবিয়ায় পাচার হওয়া ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনায় ৪১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে সিআইডি। রাজধানীর পল্টন থানায় করা মামলাটিতে সম্প্রতি আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক আছলাম আলী।

এই চার্জশিট আমলে নিয়ে মামলা থেকে পাঁচজনকে অব্যাহতি দিয়েছেন ঢাকার মানবপাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল। মামলাটি এখন বিচার শুরুর অপেক্ষায় রয়েছে।

চার্জশিট ভুক্ত ৪১ জন হলেন- তানজিদ ওরফে তানজিমূল ওরফে তানজিরুল (৩৬), জোবর আলী (৬২), জাফর মিয়া (৩৮), মিন্টু মিয়া (৪১), শাহিন বাবু (৪৫), রবিউল মিয়া (৪২), আলী হোসেন (৩৭), আমির হোসেন (৫৫), নজরুল মোল্লা (৪৩), আ. রব মোড়ল (৪০), সজীব মিয়া (২৫), স্বপন মিয়া (২৯), মুন্নী আক্তার রূপসী (২০), রুবেল শেখ (৩৬), আসুদুল জামান (৩৪), বাহারুল আলম (৬৭), নাজমুল হাসান (২৫), হেলাল মিয়া (৪২), কামালউদ্দিন (৫২), কামাল হোসেন (৪০), রাশিদা বেগম (৪২), নুর হোসেন শেখ (৫৫), ইমাম হোসেন শেখ (৩৫), আকবর হোসেন শেখ (৩২), বুলু বেগম (৩৮), জুলহাস সরদার (৪৫), শাহাদাত হোসাইন (৩০), দিনা বেগম (২৫), জাহিদুল আলম (৪২), জাকির মাতুব্বর (৬০), লিয়াকত আলী শেখ (৫০), নাসির বয়াতী (২৫), খবির উদ্দিন (৪৭), রেজাউল বয়াতী (৩৮), হাজী শহীদ মিয়া (৬৩), পারভেজ হাসান, কামছার মুন্সি (৩৫), মাহাবুব মুন্সি (৫৩), পারভেজ আহমেদ (৩৩), নজরুল ইসলাম সুমন (৩৮) ও কাউসার (৪০)।

অন্যদিকে শেখ মো. মাহাবুবুর রহমান (৪৯) ও শেখ সাহিদুর রহমানের (৪০) বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের অব্যাহতির আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। এছাড়া সাদ্দাম (২৬), কুদ্দুস বয়াতি (২৭) ও লালনের নাম ঠিকানা সঠিক না থাকায় তাদের মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দিতে আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

ঢাকার মানবপাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সাজ্জাদুল হক শিহাব বলেন, লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে নির্বিচারে গুলি করে হত্যার ঘটনায় ৪১ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে সিআইডি। চার্জশিটে পাঁচজনকে অব্যাহতির আবেদন করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। আদালত চার্জশিটটি আমলে নিয়ে পাঁচজনকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেন। মামলাটি এখন বিচার শুরুর অপেক্ষায় রয়েছে।

গত বছরের ২৮ মে লিবিয়ার সাহারা মরুভূমি অঞ্চলের মিজদা শহরে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এতে আহত হন আরও ১১ জন।

মানবকণ্ঠ/এএইচ



poisha bazar

ads
ads