12 12 12 12
দিন ঘন্টা  মিনিট  সেকেন্ড 

আপত্তিকর অবস্থায় ম্যাজিস্ট্রেট ভবনে নারীসহ ধরা এপিপি

আপত্তিকর অবস্থায় ম্যাজিস্ট্রেট ভবনে নারীসহ ধরা এপিপি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৪২

এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় হবিগঞ্জের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভবনে শুক্রবার বন্ধের দিন এক নারীসহ ধরা পড়েছেন এপিপি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম। শুক্রবার দুপুরে তার কক্ষ থেকে আদালত পরিদর্শক আল আমিন তাকে আটক করেন।

পরে বিষয়টি জানাজানি হলে আবুল কালামকে হবিগঞ্জ সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়। শনিবার দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুরুল হুদা ও হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মাসুক আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মাসুক আলী জানান, আবুল কালামকে সন্ধ্যায় আদালতে ৫৪ ধারায় চালান দেওয়া হয়। রোববার সকালে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। তিনি শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় আদালতভবনে নারী নিয়ে ধরা পড়েন। কেনো তিনি নারীকে নিয়ে সেখানে যান তার সদুত্তর দিতে পারেননি। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এ ছাড়া তিনি গোপনে মদ পান করে এবং তার আচরণও উগ্র। তার কারণে আদালত প্রাঙ্গণ নিরাপদ না হওয়ায় চালান দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বিষয়টি আরও তদন্ত করা হচ্ছে।

এদিকে রোববার দুপুরে আবুল কালামের পক্ষে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুজিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর আক্তারের আদালতে জামিন প্রার্থনা করেন অ্যাডভোকেট কামাল উদ্দিন সেলিম। তবে শুনানি শেষে জামিনের আদেশ না দিয়ে ২৭ জানুয়ারি শুনানির জন্য পুনরায় তারিখ ধার্য্য করেন।

অ্যাডভোকেট আবুল কালাম হবিগঞ্জ সদর উপজেলার তেতৈয়া গ্রামের বাসিন্দা ও হবিগঞ্জ সদর উপজেলার গোপায়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। নবনির্মিত জুডিসিয়াল ভবনে সরকারি আইন কর্মকর্তাদের জন্য কোনো কক্ষ না থাকলেও তিনি জোরপূর্বক একটি কক্ষ দখলে নিয়ে সেখানে তার অপকর্ম চালিয়ে যান। বন্ধের সময় তিনি সেখানে নারী নিয়ে আসে এবং তার বিরুদ্ধে মাদক গ্রহণেরও অভিযোগ রয়েছে।

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থ টিটো জানান, এই ঘটনা নিন্দনীয়। তবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আমি এককভাবে কিছু বলতে পারবো না। মিটিংয়ে বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

মানবকণ্ঠ/আরবি




Loading...
ads






Loading...