প্রবাসী আয়ে রেকর্ড পাকিস্তানের 


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:৫৪

চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে প্রবাসী আয়ে রেকর্ড গড়লো পাকিস্তান। গত জুলাই থেকে ডিসেম্বরে দেশটিতে ১ হাজার ৫৮০ কোটি মার্কিন ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। যা এক বছর আগের তুলনায় অন্তত ১১ দশমিক ৩ শতাংশ বেশি। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) পাকিস্তান কেন্দ্রীয় ব্যাংক (এসবিপি) প্রকাশিত পরিসংখ্যানে এ তথ্য জানা গেছে। খবর জিও নিউজের।

পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অন্যতম প্রধান উৎস প্রবাসীদের পাঠানো অর্থ। বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে দেশটিতে প্রবাসী আয় বৃদ্ধির হার অব্যাহত ছিল এবং একপর্যায়ে তা সর্বোচ্চ রেকর্ড গড়ে।

এসবিপির তথ্যমতে, গত জুলাই থেকে ডিসেম্বরে পাকিস্তানের বেশিরভাগ প্রবাসী আয় এসেছে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র থেকে।

চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে সৌদি আরবে কর্মরত পাকিস্তানিরা ৪০৩ কোটি ৪০ লাখ ডলার স্বদেশে পাঠিয়েছেন, যা ওই সময়ে দেশটির মোট প্রবাসী আয়ের প্রায় ২৫ শতাংশ। আমিরাতে বসবাসকারী পাকিস্তানিরা পাঠিয়েছেন ৩০০ কোটি ডলার। গত বছর একই সময়ে তারা পাঠিয়েছিলেন ২৯৫ কোটি ৬০ লাখ ডলার।

চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে যুক্তরাজ্য থেকে পাকিস্তানের প্রবাসী আয় ১৪ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১৪ কোটি ৭০ লাখ ডলার। যুক্তরাষ্ট্রের প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ১৪৯ কোটি ৪০ লাখ ডলার। এক বছর আগে তাদের পাঠানো অর্থের পারিমাণ ছিল ১২০ কোটি ৫০ লাখ ডলারের মতো।

আরিফ হাবিব ব্যাংকের গবেষণা প্রধান তাহির আব্বাস জানিয়েছেন, বৈধ পথে অর্থ পাঠানোয় পাকিস্তান সরকারের নানা সুবিধা এবং হুন্ডির মতো অবৈধ পথে অর্থ পাঠানোর বিরুদ্ধে কড়াকড়ি প্রবাসী আয় বাড়ায় ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে।

তাছাড়া, করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে নানা দেশের সীমান্তে কঠোর বিধিনিষেধের কারণেও প্রবাসীরা বৈধ পথে অর্থ পাঠাতে উৎসাহী হয়েছেন, যার ফলে পাকিস্তানের মোট প্রবাসী আয় বেড়েছে বলে মনে করছেন তিনি।


poisha bazar

ads
ads