বিশ্বে প্রথম ফাইজারের ভ্যাকসিন অনুমোদন দিল যুক্তরাজ্য

- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৪:১৭,  আপডেট: ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৫:১২

জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক ও মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফাইজারের যৌথ উদ্যোগে তৈরি করোনা ভাইরাসকে প্রথম ইউরোপীয় দেশ হিসেবে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে করোনায় যারা সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে তাদেরকে আগামী সপ্তাহ থেকে এই ভ্যাকসিন দেয়া হবে।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) ফাইজারের এই ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেয় ব্রিটেন সরকার।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ফাইজার/বায়েএনটেকের করোনার টিকা ব্যবহারে অনুমোদন দিতে মেডিসিনস অ্যান্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটরি এজেন্সির (এমএইচআরএ) সুপারিশ আজ গ্রহণ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, আগামী সপ্তাহ থেকে যুক্তরাজ্যজুড়ে এই টিকা পাওয়া যাবে। তবে টিকার দেয়ার ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণদের বেশি অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

এর মধ্যেই চার কোটি টিকার জন্য চাহিদা দিয়েছে যুক্তরাজ্য, যা দিয়ে দুই কোটি মানুষকে টিকা দেয়া যাবে। জনপ্রতি দুইটি করে ডোজ দেয়া হবে।
খুব তাড়াতাড়ি এক কোটি টিকার ডোজ পাওয়া যাবে।

ফাইজারের প্রধান নির্বাহী বলেন, করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্রিটেনের এই অনুমোদন ঐতিহাসিক ঘটনা। বিজ্ঞান বিজয়ী হবে, এমন ঘোষণা দেয়ার পর থেকে আমরা কাজ করে আসছি।

কোম্পানিটি জানায়, আসছে দিনগুলোর যে কোনো সময় করোনার প্রথম ডোজ আসবে। যুক্তরাজ্য চার কোটি ডোজ কিনেছে। চূড়ান্ত পরীক্ষায় এই টিকার ৯৫ শতাংশ কার্যকারিতা দেখা গেছে।

এদিকে ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ কোটি ৪১ লাখ ৮৮ হাজার ৯৫০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৪ লাখ ৮৬ হাজার ৬০৯ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪ কোটি ৪৪ লাখ ৩৭ হাজার ৯৮০ জন।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১ কোটি ৪১ লাখ ৮ হাজার ৪৯০ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৬ হাজার ৯৭৬ জনের।

দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ৯৪ লাখ ৯৯ হাজার ৭১০ জন এবং মারা গেছে ১ লাখ ৩৮ হাজার ১৫৯ জন।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় ৬৩ লাখ ৮৮ হাজারের বেশি মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৭৩ হাজার ৮৬২ জনের।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় করোনায় সংক্রমণের সংখ্যা ২৩ লাখ ২২ হাজার ৫৬ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪০ হাজার ৪৬৪ জনের।

পঞ্চম স্থানে থাকা ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২২ লাখ ৩০ হাজার ৫৭১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৫৩ হাজার ৫০৬ জন।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads