ভোটে জিতেও বিদেশী 'রোষের' মুখে বেলারুশের প্রেসিডেন্ট

ভোটে জিতেও বিদেশী 'রোষের' মুখে বেলারুশের প্রেসিডেন্ট
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৩ আগস্ট ২০২০, ১২:১৫,  আপডেট: ১৩ আগস্ট ২০২০, ১২:৩২

গণতান্ত্রিক নির্বাচনে ৮০ ভাগ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হলেও বিরোধী দলের প্রতিবাদের মুখে পড়েছেন পূর্ব ইউরোপের দেশ বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কো। তবে এ প্রতিবাদকে বিদেশী ষড়যন্ত্র বলে আখ্যা দিয়েছেন তিনি।

এদিকে নির্বাচনের পরপরই ব্যাপক ভরাডুবিতে পরাজিত হয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন বিরোধী নেতা সভেৎলানা তিখানোভস্কায়া। এরপর গত রোববার থেকে রাজধানী শহরে বিক্ষোভ করছে বিরোধী নেতাকর্মীরা।

পাঁচদিন ধরে চলা বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন একজন। বিক্ষোভ দমনে গ্রেফতার করা হয়েছে কয়েকশ বিরোধী নেতাকর্মীকে।

বেলারুশের নির্বাচনের ফলাফল বলছে, ২৬ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা লুকাশেঙ্কো ৮০ দশমিক ২৩ শতাংশ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। অপরদিকে তার প্রধান বিরোধী সভেৎলানা তিখানোভস্কায়া পেয়েছেন মাত্র ৯ দশমিক ৯ শতাংশ ভোট।

তবে সভেৎলানার সমর্থকদের দাবি, নির্বাচনে দুর্নীতি এবং জালিয়াতি করা হয়েছে। একারণে ভোট পুনর্গণনার দাবি জানিয়েছেন তার সমর্থকরা। আন্দোলনের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দিয়েছে সরকার।

এদিকে ব্যাপক ভোটে নির্বাচিত সরকারকে সমর্থন জানিয়েছে চীন-রাশিয়া।

তবে গণতান্ত্রিক নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ বলে মন্তব্য করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্র। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেলারুশের সরকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়ার পরিকল্পনা করছে দেশ দুটি।

সরকার বিরোধী আন্দোলনকে বিদেশী ষড়যন্ত্র বলে আখ্যা দিয়েছেন লুকাশেঙ্কো। তিনি বলেন, বিরোধী সমর্থকদের বিদেশ থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। দেশকে ধ্বংস করার কোনও সুযোগ দেয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়া সভেৎলানা তিখানোভস্কায়ার সন্তানেরা বর্তমানে পার্শ্ববর্তী দেশ লিথুনিয়ায় রয়েছেন। দেশটি বেলারুশ সংকটে মধ্যস্থতা করার চেষ্টা করছে।

মানবকণ্ঠ/আরএস

 





ads







Loading...