যুক্তরাষ্ট্র-কানাডায় নতুন ব্যাকটেরিয়ার প্রাদুর্ভাব

- ছবি: সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১০ আগস্ট ২০২০, ১৮:৪৬,  আপডেট: ১০ আগস্ট ২০২০, ১৮:৪৯

চীনের উহান শহর থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) ধাপটে এখন পর্যন্ত সাত লাখ ৩৪ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে দুই কোটি। ভাইরাসটির দাপটে ঘরবন্দী জীবন-যাপন করতে হচ্ছে মানুষকে। এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় নতুন একটি ব্যাকটেরিয়ার প্রাদুর্ভাবে উদ্বেগ বেড়েছে। সালমোনেলা নামের ওই ব্যাকটেরিয়ার প্রাদুর্ভাব বাড়ছে পেঁয়াজের মাধ্যমে।

মার্কিন গণমাধ্যম জানিয়েছে, একটি কোম্পানির লাল পেঁয়াজকে সম্ভাব্য বাহক হিসেবে শনাক্ত করেছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তবে কানাডার জনস্বাস্থ্যের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কানাডার পেঁয়াজে এই ধরনের ব্যাকটেরিয়া বাহনের কোনো প্রমাণ নেই। তবে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি করা পেঁয়াজে অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৩ রাজ্যে এই ব্যাকটেরিয়ার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়েছে। খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) জানিয়েছে, রোববার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৬৪০টি সালমোনেলা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। সংক্রমণের ফলে ৮৫ জনকে হাসপাতালে যেতে হয়েছে।

কানাডার জনস্বাস্থ্যের সরকারি ওয়েবসাইটে সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ সংক্রান্ত নোটিশ ওই নোটিশে লাল, সাদা, হলুদ ও মিষ্টি হলুদ পেঁয়াজ খাওয়া, বিক্রি বা সরবরাহের ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। কানাডায় এ পর্যন্ত ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হওয়া ২৩৯ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে পেঁয়াজ নিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করেছে সিডিসি, ‘আপনি যদি না জানেন পেঁয়াজ কোথায় থেকে এসেছে, তাহলে খাবেন না, পরিবেশন করবেন না কিংবা বিক্রি করবেন না অথবা তা দিয়ে খাবার বানাবেন না।’

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, সালমোনেলায় আক্রান্তের লক্ষণ হল ব্যাকটেরিয়া শরীরে প্রবেশের ছয় থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ডায়রিয়া, জ্বর ও পেটব্যাথা শুরু হয়। পাঁচ বছরের নিচের শিশু ও ৬৫’র বেশি বয়স্কদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকায় অসুস্থতা গুরুতর হতে পারে। এই লক্ষণগুলো দেখা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এসকে





ads







Loading...