জাহাজের মেঝেতেও ১৭ দিন বেঁচে ছিল করোনাভাইরাস!

জাহাজের মেঝেতে ১৭ দিন বেঁচে ছিল করোনাভাইরাস!
যাত্রীবাহী জাহাজ ডায়মন্ড প্রিন্সেস - সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৫ মার্চ ২০২০, ২২:৫৩

করোনা ভাইরাসের থাবায় নাকাল অবস্থা পার করছে সারাবিশ্ব। ভাইরাসের জীবনচক্র বুঝতে নানা গবেষণা চালাচ্ছেন গবেষকরা। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, এ ভাইরাসের স্থায়িত্ব বাড়ে শুধু মানবদেহেই। তবে এবার ভাইরাসটি সম্পর্কে পাওয়া গেল নতুন তথ্য। এতে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে গবেষকদের কপালে।

গবেষকরা বলছেন, জাহাজের ধাতব মেঝেতে ১৭ দিন পরেও বেঁচে ছিল করোনা ভাইরাস। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি যে কেবিনে ছিলেন, তিনি সেখান থেকে বের হয়ে যাওয়ার ১৭ দিন পর পরীক্ষা করে এটি দেখা গেছে।

জানা গেছে, ডায়মন্ড প্রিন্সেস যাত্রীবাহী জাহাজে ওই ঘটনা প্রত্যক্ষ করা হয়েছে। গবেষকরা জানিয়েছেন, পরীক্ষার জন্য কেবিনটি জীবাণুনাশক না করে রেখে দেওয়া হয়েছিল। তবে ঠিক কিভাবে এতো দীর্ঘ সময় বেঁচে থাকতে পারে ভাইরাসটি, তা উদঘাটন করতে পারেননি গবেষকরা। বিষয়টি জানার পর থেকেই গবেষকদের কপালে চিন্তার ভাঁজ দেখা দিয়েছে।

মার্কিন গবেষক এবং সেন্টার ফর ডিজিস অ্যান্ড কন্ট্রোল প্রিভেনশনের প্রধান ডা. টম প্রিডেন বলেন, মশা যেমন ম্যালেরিয়া ছড়ায়, এঁটেল পোকা রোগ ছড়ায়, তেমনি জাহাজে এটি ছড়িয়ে গেছে। কিন্তু কিভাবে এটি ছড়াল, তা এখনো জানা যায়নি।

এদিকে ডায়মন্ড প্রিন্সেস এবং গ্র্যান্ড প্রিন্সেস যাত্রীবাহী জাহাজে আট শতাধিক মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তার মধ্যে অন্তত ১০ জন মারা গেছেন।

জানা গেছে, আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হওয়া ১৭.৯ শতাংশের শরীরে কোনো ধরনের লক্ষণ প্রকাশ পায়নি।

মানবকণ্ঠ/এআইএস

 




Loading...
ads






Loading...