টিকার প্রথম ৩ দিন হতে পারে ক্লান্তি-জ্বর-মাথাব্যথা


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ১১:০৩

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী ২৫ বা ২৬ জানুয়ারি প্রথম ধাপের করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) ভ্যাকসিন দেশে আসতে পারে। তবে অন্যান্য দেশে করোনা ভ্যাকসিনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার বিষয়টি গণমাধ্যমে আসায় ভ্যাকসিনে কী ধরনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে, সেটি নিয়ে চলছে নানান আলোচনা। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে আগাম প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে সরকার।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে ‘ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড ভ্যাকসিনেশন প্ল্যান ফর কোভিড ভ্যাকসিন ইন বাংলাদেশ’ বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিভিন্ন বিষয়ের পাশাপাশি ভ্যাকসিন দেয়ার ফলে কী ধরনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

সভায় বলা হয়, কিছু কিছু ক্ষেত্রে টিকা দেয়ার পরে প্রথম তিন দিন ক্লান্তি, জ্বর এবং মাথাব্যথা হতে পারে। ভ্যাকসিন দেয়ার পর এই সাধারণ প্রতিক্রিয়াগুলো সাধারণত হালকা ধরনের হয় এবং কয়েক দিনের মধ্যে সেরে যায়। ভ্যাকসিন দেয়া স্থানের চারদিকে লালচেভাব, ফোলা বা ব্যথা হতে পারে। তাই এমন পরিস্থিতিতে কী পদক্ষেপ নেয়া যায়, সেটি নিয়ে সভায় আলোচনা হয়।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, টিকা দেয়ার পর জটিলতা সৃষ্টি হলে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার কার্যক্রমকে আরো জোরদার করতে বিভিন্ন পর্যায়ের কমিটিগুলো পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। এতে বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশেষজ্ঞদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। কমিটিগুলোকে যথাযথ প্রশিক্ষণ দেয়ার জন্য গাইডলাইনও তৈরি করা হয়েছে।

টিকাদান পরবর্তী জটিলতাকে সাথে সাথে চিহ্নিত করার লক্ষ্যে সক্রিয় নজরদারির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। মাঠপর্যায়ের কর্মীদের টিকাদান পরবর্তী জটিলতা এবং করণীয় সম্পর্কে ধারণা দেয়ার লক্ষ্যে তাদের প্রশিক্ষণ সহায়িকায় তা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

টিকা দেয়ার পর টিকা গ্রহণকারীকে কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর্যবেক্ষণে রাখা হবে যাতে কোনো অসুবিধা হলে তাৎক্ষণিকভাবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া যায়। প্রতিটি টিকাদান কেন্দ্রে টিকা পরবর্তী জটিলতা ব্যবস্থাপনার জন্য এইএফআই কিটের ব্যবস্থা রাখা হবে।

ভ্যাকসিনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. আবু হোসেন মোহাম্মদ মঈনুল আহসান বলেন, ‘যে কোনো ইনজেকশনে শরীরে জ্বর আসতে পারে। কারণ ইনজেকশন আমাদের শরীরে গিয়ে একটা মেকানিজম শুরু করে। বডিতে কয়েকটা মেকানিজমকে ইনিশিয়েট করে। ওষুধ শরীরে গিয়ে কাজ শুরু করে, ডিফারেন্ট সিস্টেম শুরু করে। এটাকে বলে ইমিউন রেসপন্স, এর ক্যারেক্টার হচ্ছে জ্বর। যে কোনো টিকাতেই জ্বর আসতে পারে। ভ্যাকসিন নিলে ক্লান্তি, জ্বর, মাথাব্যাথা হতে পারে; এটা খুবই স্বাভাবিক। বিভিন্ন দেশে ফাইজারের টিকাতেও এটা হচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, এ ধরনের বিষয়গুলো নিয়ে ভয়ের কিছু নেই। বিদেশে যারা টিকা নিচ্ছে তারা টিকা নিয়ে ভাবছে কোভিড হয়েছে, কারণ কোভিডের মতো লক্ষণ তাদের হচ্ছে টিকা নেয়ার পরে। জ্বর আসছে বলে তারা ভাবছে তাদের করোনা হচ্ছে, ভয় পাচ্ছে। কিন্তু ভয়ের কিছু নেই।






ads
ads