বার্সাকে হারিয়ে শিরোপা বিলবাওয়ের মেসির লালকার্ড


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৫২

স্পেনের সেভিয়াতে অনুষ্ঠিত স্প্যানিশ সুপার কাপের রোমাঞ্চকর ফাইনালে বার্সেলোনাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতে নিয়েছে অ্যাটলেটিকো বিলবাও। তবে ম্যাচের সবকিছুর আলোচনা ছাপিয়ে উঠে এসেছে বার্সার হয়ে মেসির প্রথম লালকার্ড।

বার্সার হয়ে ৭৫৩ ম্যাচ খেলার পর এটিই তার প্রথম লালকার্ড। অথছ ইনজুরির কারণে এই ম্যাচের আগে মেসির খেলা নিয়ে ছিল ধোঁয়াশা।

মেসি অবশ্য নেমেছেন শুরুর একাদশেই। ফাইনালে বার্সাকে এগিয়ে নিতে মেসিরই ভূমিকা ছিল বেশি। ৪০ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে মেসির দেয়া ক্রস প্রতিপক্ষের বাধায় পড়লে বল পেয়ে যান এন্টনিও গ্রিজমান। জালে বল পাঠাতে ভুল করেননি ফরাসি তারকা। দুই মিনিট পরই গোল পরিশোধ করে বিলবাও। মার্কোসের গোলে সমতায় ফেরে তারা।

বিরতির পর আবারও গোল করে এগিয়ে যায় বার্সা। এবারও বার্সাকে এগিয়ে দেন গ্রিজমান। কিন্তু ৯০ মিনিটে নাটকীয়ভাবে বিলবাওকে সমতায় ফিরিয়ে দেন বদলি খেলোয়াড় আসিয়ের। নির্ধারিত সময়ের খেলা অতিরিক্ত সময়ে গড়ালে বিলবাও জয় সূচক গোল তুলে নেয় ৯৩ মিনিটে। ইনাকি উইলিয়ামস কোনাকুনি শর্টে গোল করে এগিয়ে নেন দলকে। এর পর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি বার্সা।

উল্টো শ্বাসরুদ্ধকর এই ম্যাচের শেষ দিকেই অপ্রত্যাশিত এক কাণ্ড করে বসেন মেসি। ১২০+১ মিনিটে আসিয়েরকে হাত দিয়ে মাথার পেছনে আঘাত করলে ভার রিভিউ দেখে তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি! যা মেসির বার্সা ক্যারিয়ারের প্রথম লাল কার্ড। এর আগে অবশ্য দুবার লাল কার্ড দেখলেও সেটি ছিল আর্জেন্টিনার হয়ে। যার প্রথমটি তার আন্তর্জাতিক অভিষেকের সময় ২০০৫ সালে, আরেকটি ২০১৯ সালের কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণীতে।

ম্যাচশেষে বার্সা কোচ রোনাল্ড কুম্যান বলেন, ‘আমি বুঝতে পারছি মেসি কী করেছে। জানি না, কতবার তারা মেসিকে ফাউল করেছে। আর যখন কেউ ড্রিবল করে এগিয়ে যেতে চায় এবং পদে পদে তাকে ফাউল করা হয় তখন ওই খেলোয়াড়ের পাল্টা প্রতিক্রিয়া দেখানোটা স্বাভাবিক। তবে প্রকৃত ঘটনা বুঝতে আমাকে আবার তা ভালোভাবে দেখতে হবে।’

এই ঘটনায় লা লিগা ও কোপা দেল রে মিলে আর্জেন্টাইন তারকা চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে পারেন বলে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

 






ads
ads