রিয়ালকে লজ্জায় ডুবাল ‘অনভিজ্ঞ’ শাখতার


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২২ অক্টোবর ২০২০, ১৭:৪৭

করোনার কারণে নেই মূল দলের ১০ খেলোয়াড়। এমন পরিস্থিতিতে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে জয় ত দূরের কথা, আলফ্রেডো ডি স্টেফানো মাঠে বরং কয় গোলে হারবে শাখতার দোনেত্স্ক এনিয়ে চলছিল বাজির দর। কিন্তু সবাইকে চমকে দিয়ে উল্টো রিয়ালকেই লজ্জায় ডুবাল শাখতারের অনভিজ্ঞ দলটি।

প্রথমার্ধে ৩ গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ঘুরে দাঁড়ানোর গল্পটা ঠিকভাবে লিখতে না পারায় ৩-২ গোলের হার নিয়েই চ্যাম্পিয়নস লিগে যাত্রা করতে হল জিনেদিন জিদান শিষ্যদের। তবে ভিএআর না থাকলে ড্রয়ের স্বস্তি নিয়েই শনিবার এল ক্ল্যাসিকোতে নামতে পারত তারা ।

বুধবার রাতে হাঁটুর সমস্যার কারণে একাদশে ছিলেন না সের্হিও রামোস। অধিনায়ককে ছাড়া রিয়াল যে কতটা বিবর্ণ প্রমাণ মিলে পরিসংখ্যানেই (৮ ম্যাচে ৭ হার)। কিন্তু প্রতিপক্ষ শাখতার বলেই হয়তো একটু নির্ভার ছিলেন জিদান। তাই করিম বেনজেমা, টনি ক্রুসকে ছাড়াই সাজান মূল একাদশ। রিয়াল কোচের পরিকল্পনাকে ভুল প্রমাণ করতে ২৯ মিনিট পর্যন্ত সময় নেয় শাখতার। ভিক্টর করনিয়েঙ্কোর সাজানো বলে ইউক্রেনের ক্লাবটিকে এগিয়ে দেন তেতে।

চার মিনিট পর আবারো এই ফরোয়ার্ডের দক্ষতায় এগিয়ে যায় সফরকারীরা। তবে গোলটি ছিল আত্মঘাতী। তেতের শট থিবো কোর্তোয়া ঠেকিয়ে দিলেও ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের পায়েই কুড়াল মারেন ফরাসি ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানে। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে তৃতীয় গোলেও ভূমিকা রাখেন তেতে। ডি-বক্সের মুখে ব্যাকহিলে সলোমনের উদ্দেশে বল বাড়ান তিনি। কোনাকুনি শটে বলটি জালে জড়িয়ে রিয়ালকে ২০ বছর আগের স্মৃতি মনে করিয়ে দেন সলোমন। ঘরের মাঠে সবশেষ ২০০০ সালে বিরতির আগে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে তিন গোল খেয়েছিল লস ব্ল্যাঙ্কোসরা ।

পিছিয়ে পড়ে রিয়ালে ঘুরে দাঁড়ানোর কাব্য ভূরি ভূরি। কিন্তু সেই কাব্যে যোগ হলো না এই গল্পটি। তবু চেষ্টা করেছিলেন মদ্রিচ-ভিনিসিয়ুসরা। ৫৪ মিনিটে প্রায় ৩০ গজ দূরে থেকে মদ্রিচের চিরচেনা শটটি ঠেকানোর বদলে শুধু তাকিয়েই থাকেন শাখতার গোলরক্ষক। পাঁচ মিনিট পর প্রতিপক্ষের ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে ব্যবধান আরো কমান ভিনিসিয়ুস। যোগ করা সময়ে ৩-২কে ৩-৩ বানিয়েই ফেলেছিল রিয়াল। কর্নার থেকে পাওয়া বলে ফেদে ভালভেরদের শট প্রতিপক্ষের এক জনের পায়ে লেগে জালে জড়ালে ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ার প্রস্তুতি নেয় তারা। কিন্তু ভিএআরে দেখে অফসাইডে থাকা ভিনিসিয়ুসের কারণে গোলটি বাতিল করেন রেফারি।

ফলে ঘরের মাঠে আরো একবার হেরেই এল ক্লাসিকোর প্রস্তুতি সারল লা লিগা চ্যাম্পিয়নরা। তবে শনিবার রাতে এমন পুনরাবৃত্তি হবে না বলে আশ্বাস দিলেন জিদান, ‘শনিবার আমরা সেখানে (এল ক্ল্যাসিকো) ঘুরে দাঁড়াব এবং এজন্য প্রস্তুতি নিতে যাচ্ছি, এই ছাড়া কিছু বলার নেই। আমাদের জন্য আজকের (বুধবার) রাতটা নেতিবাচক তবে আমাদের সবকিছুতে পরিবর্তন আনতে হবে।’

পরিবর্তনের প্রথম বিষয়টা যে আত্মবিশ্বাস সেটাও জানিয়ে দিলেন জিদান, ‘আজ (বুধবার) আমাদের সবকিছুতেই কিছুটা ঘাটতি ছিল। তবে সবচেয়ে বাজে ব্যাপার হলো, আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি। প্রথমার্ধে তিন গোল হজমের পর ভাষা খুঁজে পাওয়া মুশকিল। তাদের প্রথম গোলে আমরা একটা ভুল করেছিলাম, এরপর ম্যাচটা খুব কঠিন হয়ে পড়েছিল।’

রিয়ালের হারের রাতে ২-২ গোলে ড্র করেছে একই গ্রুপে থাকা ইন্টার মিলান। নিজেদের মাঠে শেষ মিনিটে রোমেলু লুকাকুর গোলে বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখের বিরুদ্ধে কোনো মতে হার এড়ায় নেরাজ্জুরিরা। তাদের প্রথম গোলটিও আসে লুকাকুর পা থেকে। অপরদিকে মনশেনগ্লাডবাখের হয়ে গোল দুটি করেন রামি বেনসেবাইনি ও ইয়োনাস হোফম্যান।






ads