পয়েন্ট খুইয়ে বিপদে বার্সা


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৮ জুন ২০২০, ১৮:২০

টানা তৃতীয়বার লিগ জেতার পথটা কঠিন হলেও দুষ্কর ছিল না বার্সেলোনার জন্য। বাকি সবগুলো ম্যাচে জয়ের পাশাপাশি চেয়ে থাকতে হতো রিয়াল মাদ্রিদের মাত্র এক পয়েন্ট খোয়ানোর দিকে। কিন্তু সে আশায় গুঁড়েবালি।

নিজেদের কাজটাই যে ঠিকমতো করতে পারছে না কাতালানরা। সেভিয়ার বিপক্ষে ড্রয়ের পর অ্যাতলেটিক ক্লাবকে হারালেও ফের লিগ ম্যাচে পয়েন্ট খুইয়েছে বার্সা।

শনিবার রাতে সেল্টা ভিগোর মাঠে ২-২ গোলে ড্র করে কিকে সেতিয়েনের শিষ্যরা। এস্তাদিও ডি মিউনিসিপ্যাল ব্যালাইডোসে ড্র করে রিয়ালের লিগ জেতার সম্ভাবনা আরো বাড়িয়েও দিয়েছে মেসিরা। গত রাতে যদি রিয়াল এস্পানিওলের বিপক্ষে জয় পেয়ে থাকে তবে এরইমধ্যে দুই পয়েন্ট এগিয়ে থেকে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে গেছে লস ব্লাঙ্কোসরা। এক ম্যাচ বেশি খেলে বার্সার বর্তমান পয়েন্ট ৬৯।

সেল্টার মাঠ বার্সার জন্য বরাবরই দুর্ভেদ্য। শেষ ৫ মৌসুমে একবারও সেখান থেকে জয় নিয়ে ফিরতে পারেনি দলটি। এর মধ্যে হারতে হয়েছে তিনটিতে। গত দুই ম্যাচের মতো এ ম্যাচেও গোল থেকে বিরত ছিলেন ব্লাউগ্রানা অধিনায়ক লিওনেল মেসি। তবে জ্বলে উঠেছিলেন ইনজুরি থেকে ফেরা উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। দলকে দুবার এগিয়ে নিয়েও কাঙ্ক্ষিত জয় এনে দিতে পারেনি তার সতীর্থরা।

ম্যাচের ২০ মিনিটে মেসির ফ্রি-কিক থেকে মাথা ছুঁইয়ে প্রথম গোলের দেখা পান সুয়ারেজ। ওই এক গোলেই শেষ হয় প্রথমার্ধ। বেশ ক’টি গোলের সুযোগ মিস না করলে হয়তো ব্যবধানটা বাড়িয়ে নিতে পারতেন মেসিরা।

বিরতির পর ম্যাচে ফিরে আসে স্বাগতিক দল। ৫০ মিনিটে থ্রু পাস থেকে বল পেয়ে দ্রুত গতিতে পেনাল্টি ডি-বক্সের ভেতরে নিয়ে যান সেল্টা অধিনায়ক ইয়াগো আসপাস। গোল মুখের সামনে ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা ফেডর স্মলোভকে পাস দিলে, বার্সা গোলরক্ষককে বোকা বানাতে কোনো ভুল করেননি তিনি।

৬৭ মিনিটে সুয়ারেজের গোলে আবারো এগিয়ে যার বার্সা। পেনাল্টি ডি-বক্সের ভেতরে মেসির বাড়িয়ে দেয়া বল পেয়ে লিড এনে দেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। ম্যাচ শেষ হওয়ার ঠিক তিন মিনিট আগে ঠিকই সমতায় ফেরে সেল্টা। অসাধারণ এক ফ্রি-কিক থেকে গোল করে দলকে ২-২ গোলে সমতায় ফেরান আসপাস। ম্যাচ ড্রয়ের পর বার্সা কোচ অতি সুযোগ নষ্ট করাকেই দোষ হিসেবে দেখছেন।

তিনি বলেন, ‘শেষ কয়েক মিনিটে তারা (সেল্টা ভিগো) অনেক ঝুঁকি নিয়েছে এবং একটি গোলও পেয়ে গেছে, যা তাদের একটি পয়েন্ট এনে দিয়েছে। আমাদের এমন পরিস্থিতিতে পড়াই উচিত ছিল না। কারণ প্রথমার্ধে আমরা অনেক ভালো খেলেছি। বড় ব্যবধানে এগিয়ে থেকে আমাদের বিরতিতে যেতে হতো। আমরা অনেক কিছু ভালোভাবে করেছি। ম্যাচটা আমাদের জন্য সহজ হওয়া উচিত ছিল। প্রথমার্ধে আমরা যে আধিপত্য ধরে রেখে খেলেছি, ম্যাচ জয়ের জন্য সেটাই যথেষ্ট হওয়ার কথা, কিন্তু গোল করা আমাদের জন্য কঠিন হয়ে উঠছে। অবশ্য গোল করার বিষয়টা কখনো কখনো ভাগ্যের ব্যাপারও।’

মানবকণ্ঠ/এফএইচ




Loading...
ads






Loading...