সম্মেলন যত জেলায় হয় তাতেই খুশি

সম্মেলন যত জেলায় হয় তাতেই খুশি

poisha bazar

  • সাইফুল ইসলাম
  • ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০২:১১,  আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:০৫

আওয়ামী লীগের মেয়াদোত্তীর্ণ সাংগঠনিক জেলাগুলোর সম্মেলন আগামী ৬ মার্চের মধ্যে আয়োজনের নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় হাইকমান্ড। একই সঙ্গে উল্লিখিত সময়ের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড শাখাগুলোর সম্মেলন করার নির্দেশনাও রয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যাতে সম্মেলন হয় সেই নির্দেশনা দিয়ে ইতোমধ্যে দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষরিত চিঠি সংশ্নিষ্ট জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এই চিঠি পাওয়ার পর থেকেই সম্মেলন করার ব্যাপারে জেলা নেতারা তোড়জোড় শুরু করছেন। তবে অনেকের মতে হাতেগোনা কয়েকটি জেলা সম্মেলন হলেও এবারো সারা জেলায় সম্মেলন হবে না বলে মনে করেন দলের সিনিয়র নেতারা। একাধিক নেতা জানান, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যতটি জেলায় সম্মেলন হয় তাতেই কেন্দ্রীয় কমিটি খুশি। তবে সম্মেলন ছাড়া কোনো জেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা।

এদিকে গত বছর ২০ ও ২১ ডিসেম্বর ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলর অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় সম্মেলনের এক মাস আগে থেকে কেন্দ্রীয় কমিটি অনেক চেষ্টা করে বিদায়ী কার্যনির্বাহী সংসদের মেয়াদকালে ৭৮ টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে ৩৩টির সম্মেলন করে। এর মধ্যে বাকি রয়েছে ৪৫টি জেলা সম্মেলন। সেই জেলাগুলোতে আগামী ৬ মার্চের মধ্যে সম্মেলন সফল করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্দেশনা পাওয়ার পর পরই সাংগঠনিক সম্পাদকরা দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগের জেলা নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। ৪৫টি জেলা হচ্ছে টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, ঢাকা, গাজীপুর, গাজীপুর মহানগর, নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ, ময়মনসিংহ মহানগর, নেত্রকোনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা দক্ষিণ, চাঁদপুর, লক্ষীপুর, চট্টগ্রাম মহানগর, কক্সবাজার, রাঙ্গামাটি, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, জয়পুরহাট, নওগাঁ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী মহানগর, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহ, মাগুরা, বরগুনা, ভোলা, বরিশাল ও পিরোজপুর।

উল্লিখিত জেলাগুলোর মধ্যে সম্মেলন শুরু হয়েছে। ৮ ফেব্র্রুয়ারি পগড় জেলার সম্মেলন হয়েছে বলে জানিয়েছেন খুলনা বিভাগের দায়িত্ব প্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক। তিনি বিদায়ী কার্যনির্বাহী সংসদে রংপুর বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। চলতি মাসের ২৯ ফেব্র্রুয়ারি নরসিংদী জেলা সম্মেলনের দিন-তারিখ ঠিক হয়েছে। এই মাসের মধ্যেই মানিকগঞ্জ জেলা সম্মেলন হতে পারে। এ ছাড়া ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন জেলা সম্মেলন সফল করা হবে বলে জানা গেছে।  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় কাউন্সিলের আগে যে সব জেলায় সম্মেলন হয়নি তা আগামী ৬ মার্চের মধ্যে সম্মেলন করতে হবে। এক প্রশ্নের  জবাবে তিনি বলেন, ৬ মার্চের মধ্যে যতটুকু জেলায় সম্ভব করা যায়। জেলা সম্মেলন একটি নিয়মাফিক কাজ। সম্মেলন করে কমিটি দিতে হবে। সম্মেলন ছাড়া কোনো কমিটি দেয়া যাবে না।

মানবকণ্ঠ/ এমএইচ




Loading...
ads






Loading...