ভ্যাটিকান সিটিতে করোনার থাবা


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫৩

ক্যাথলিক খ্রিস্ট ধর্মের সর্বোচ্চ পীঠস্থান ভ্যাটিকানেও হানা দিলো প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। ভ্যাটিকান হল খ্রিস্টানদের শীর্ষ ধর্মগুরু পোপের কার্যালয়। স্বভাবতই এখানে থাকেন পোপ ফ্রান্সিস। একই বাড়িতে থাকেন পোপের এক সতীর্থ।

শনিবার তার করোনা টেস্ট করার পর রোববার জানা যায় রেজাল্ট পজিটিভ এসেছে। যিনি পোপের সঙ্গে একই রুমে থাকেন। ক’দিন আগেই জানা গিয়েছিল, ‘সুইস গার্ড’ নামে পোপের উচ্চস্তরীয় নিরাপত্তা বাহিনীর ১১ জওয়ানের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

রোববার ভ্যাটিকান থেকে এ খবর নিশ্চিত করে বলা হয়, করোনা আক্রান্ত ১২ জনের মধ্যে কারো কারো উপসর্গ ছিল না। জওয়ানদের সকলকেই দ্রুত ভ্যাটিকান থেকে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়। পাশাপাশি শনিবার নতুন করে শনাক্ত হওয়া পোপের রুমমেটকেও আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। ভ্যাটিকানের অদূরে কোয়ারেন্টিনেই তার চিকিৎসা শুরু হয়েছে। একইসঙ্গে গত কয়েক দিনে তিনি যাদের সংস্পর্শে আসেন, তাদেরকেও ভ্যাটিকান কার্যালয় থেকে অন্যত্র পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভ্যাটিকানে মোট ১৩০টি রুম আছে। এসব কক্ষে ভ্যাটিকানের কর্মকর্তারা থাকেন। তবে ৮৩ বছর বয়সি পোপের প্রতিদিনই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। তার জন্য নিযুক্ত রয়েছে এক বিশেষ মেডিক্যাল টিম। যদিও পোপ নিজে মাস্ক ব্যবহার করেন না। কিন্তু বয়সের কারণে পোপও করোনার ঝুঁকিতে রয়েছেন।

এদিকে ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, গত একদিনে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ লাখ ২৪ হাজার ৯২৭ জনের। সোমবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ২ লাখ ৬৪ হাজার ২১৯ জন। নতুন করে ৩ হাজার ৯৭১ জন মারা যাওয়ায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১ লাখ ১৮ হাজার ২৯৪ জন। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিন কোটি ১ লাখের বেশি মানুষ।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। যুক্তরাষ্ট্রের পরেই সংক্রমণে এগিয়ে রয়েছে ভারত, ব্রাজিল, রাশিয়া, কলম্বিয়া, পেরু, মেক্সিকো, স্পেন, দক্ষিণ আফ্রিকা, আর্জেন্টিনা।

তালিকায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের সবকটি অঙ্গ রাজ্যেই বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ লাখ ৮৭ হাজার ৭৯৯ জন। মৃত্যু হয়েছে দুই লাখ ২৪ হাজার ৭৩০ জনের।

দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫ লাখ ৪৮ হাজার ২৩৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ১৪ হাজার ৬৪২ জনের।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় ৫২ লাখ ৩৫ হাজার ৩৪৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৫৩ হাজার ৯০৫ জনের।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩৩৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ২৪ হাজার ১৮৭ জন।

পঞ্চম স্থানে উঠে আসা আর্জেন্টিনায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লাখ ৮৯ হাজার ৬৮০ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার ২৬৭ জনের।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৫৬৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৬৬০ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩ লাখ ৩ হাজার ৯৭২ জন।

 

 






ads