সন্তানকে হারিয়ে স্তব্ধ ব্রিটনি


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫ মে ২০২২, ২৩:৪০

মা হওয়া যেমন সুখের, তেমন সন্তানকে হারানোর বেদনাটা তার চেয়েও কয়েক গুণ বেশি। তবে জন্ম ও মৃত্যুর মধ্যে হাজার ফারাক থাকলেও একে অপরের পরিপূরক হয় না। তেমনই নিজের সন্তানকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে গেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পপ গায়িকা ব্রিটনি স্পিয়ার্স। অনাগত সন্তানকে হারানোর সেই ব্যথা যেন কিছুতেই ঘুঁচছে না তার।

গত মাসে জানিয়েছিলেন মা হতে যাচ্ছেন তিনি। কিন্তু গর্ভপাতে অনাগত সন্তানকে হারালেন এই গায়িকা। শনিবার (১৪ মে) ব্রিটনি ও তার সঙ্গী স্যাম আসগারি ইনস্টাগ্রামে যৌথ বিবৃতিতে এ খবর জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গভীর দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, গর্ভাবস্থার শুরুতে আমরা সন্তানকে হারিয়ে ফেলেছি। যে কোনো মা-বাবার কাছেই এটি একটি হৃদয়বিদারক ঘটনা। মা হওয়ার খবরটি জানাতে আমরা একটু বেশি তাড়াহুড়া করে ফেলেছিলাম, আর একটু সময় অপেক্ষা করা উচিত ছিল। পরস্পরের প্রতি আমাদের ভালোবাসাই এখন সবচেয়ে বড় শক্তি। ভবিষ্যতে নিজেদের পরিবার বড় করার চেষ্টা করব।’

ব্রিটনি স্পিয়ার্স এর আগে দুইবার বিয়ে করেছেন। ২০০৪ সালে তার ছোটবেলার বন্ধু জ্যাসন আলেকজান্ডারকে বিয়ে করেন এই গায়িকা। কিন্তু এ বিয়ে বেশিদিন টেকেনি। একই বছর নৃত্যশিল্পী কেভিন ফেডারলিনকে বিয়ে করেন ব্রিটনি। এ সংসারে তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। ২০০৭ সালে এ সংসারের ইতি টানেন এই গায়িকা। ২০১৬ সালে একটি মিউজিক ভিডিওর সেটে স্যাম আজগারির সঙ্গে পরিচয় হয় ব্রিটনির। গত বছরের সেপ্টেম্বরে প্রেমিক স্যাম আসগারির সঙ্গে আংটি বদল করেন ব্রিটনি। স্যাম পেশায় শরীরচর্চা প্রশিক্ষক ও অভিনেতা।

গত বছর বাবার সঙ্গে কনজারভেটরশিপ নিয়ে চর্চায় ছিলেন ব্রিটনি। গায়িকার জীবন থেকে শুরু করে কেরিয়ারের সব দায়িত্ব আদালতের মাধ্যমে তুলে দেয়া হয়েছিল গায়িকার বাবা জিমি স্পিয়ার্সের হাতে। কিন্তু ব্রিটনির অভিযোগ ছিল, তার জীবনকে শেকলে বেঁধে দিয়েছেন বাবা, এমনকী বাবার জন্যই সে বিয়ে করতে পারছে না। জোর করে কনট্রোসেপটিভ পিল খাওয়ানোয় মা হতে পারছেন না। তারপর ‘ফ্রি বিটনি’ রব উঠেছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে ১৩ বছর বাদে ব্রিটনির ওপর থেকে উঠিয়ে দেয়া হয় কনজারভেটরশিপ। সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস


poisha bazar