আদালতে জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১২ মে ২০২২, ১১:৩৪

দেশছাড়ার অনুমতি নেই বলিউড তারকা জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের। ২০০ কোটি রূপি পাচারের মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু সুকেশ চন্দ্রশেখর। তার পর থেকে একাধিকবার ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট অফিসে হাজিরা দিয়েছেন নায়িকা। এখনও সেই মামলার রফা হয়নি। তাই তো দেশের বাইরে যেতে ফের দরখাস্ত করতে হলো তাকে।

এএনআই থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী দিল্লি আদালতে ১৫ দিন দেশের বাইরে থাকার অনুমতি চেয়েছেন তিনি। যাবেন আবুধাবি। আইফা অ্যাওয়ার্ড উপলক্ষেই সে দেশে যাওয়ার কথা আছে জ্যাকুলিনের। যদিও আদালত অনুমতি না দিলে দেশ ছাড়তে পারবেন না তিনি। সঙ্গে ফ্রান্স আর নেপাল যাওয়ার কথাও আছে বলিউড অভিনেত্রীর।

গত বছর তাকে দুবাই যাওয়ার পথে আটকে দেওয়া হয় মুম্বাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। সেই সময় তার নামে লুক আউট নোটিশ জারি করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। বেশ কয়েকবার ম্যারাথন জেরাও করা হয়েছে তাকে সুকেশের সঙ্গে কী সম্পর্ক তা খতিয়ে দেখার জন্য। সঙ্গে ওই ঠকবাজের সঙ্গে তার কী সম্পর্ক, কী কী উপহার নিয়েছেন, এ রকম বেশ কিছু অপ্রীতিকর প্রশ্নের মুখোমুখিও হতে হয়েছে ‘কিক’ নায়িকাকে।

সম্প্রতি জ্যাকুলিন ইডিকে জানিয়েছেন, সুকেশের সঙ্গে প্রথম দেখা হয় তার চাচার শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানে। ‘বন্ধু’র পাঠানো প্রাইভেট জেটে করে তিনি সেই সময় চেন্নাই গিয়েছিলেন। উঠেছিলেন হায়াতে। এর পর ‘ব্যক্তিগত দরকারে’-এ সুকেশের পাঠানো জেট, হেলিকপ্টারে করে কেরালা ঘুরতে যান।

জ্যাকুলিন জানান, তিনটি ডিজাইনার ব্যাগগুচি আর শ্যানেলের থেকে, গুচির দুটো পোশাক, লুই ভিত্যোঁর জুতা আর দুটি হীরের কানের দুল নিয়েছেন তিনি। সুকেশ একটি মিনি কুপারও পাঠিয়েছিলেন জ্যাকুলিনকে, যা তিনি ফেরত পাঠিয়ে দেন। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।


poisha bazar


ads