কিং খানের যত নায়িকা


  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৩

শাহরুখ খান এর ‘ফ্যান’ ছবির শুটিং শুরুর বহু আগে থেকেই বলিউডে নানা আলোচনা, গুঞ্জন চাউর হচ্ছিল। ‘ফ্যান’ ছবিতে শাহরুখের নায়িকা কে হবেন-তা নিয়ে। দীর্ঘদিন আলোচনা, গবেষণা হয়েছে। কখনো নতুন প্রজন্মের সুন্দরী তন্বী নায়িকা ইলিয়ানা ডিক্রুজ আবার কখনো ‘শুদ্ধ দেশি রোমান্স’ খ্যাত নায়িকা বাণী কাপুর আবার কখনো পরিনীতি চোপড়ার নাম শোনা গেছে এ ছবিতে শাহরুখের বিপরীতে সম্ভাব্য অভিনেত্রী হিসেবে।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত পুরনো কেউ নয়, শাহরুখ খানের বিপরীতে ‘ফ্যান’ ছবিতে  নায়িকা সেজেছিলেন সম্পূর্ণ নতুন একটি মুখ ওয়ালুসকা ডি সুজা। এর আগে বলিউডে তার বিচরণ ছিল না। মডেলিং এবং র‌্যাম্পের অঙ্গন থেকে প্রথম নায়িকা হিসেবে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছিল তার। সন্দেহ নেই প্রথম অভিনীত সিনেমাতেই কিং খানের নায়িকা হওয়ার সুযোগ পাওয়াটা ছিল ত্রিশ পেরোনো তিন সন্তানের জননী সুন্দরী ওয়ালুসকার জন্য বিরাট প্রাপ্তি।

কারণ, বলিউডে ব্যস্ত জনপ্রিয় অনেক অভিনেত্রী রয়েছেন যারা দীর্ঘদিন ধরে হিন্দি সিনেমা জগতে থাকলেও শাহরুখের বিপরীতে নায়িকা হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করতে পারেননি। যে কারণে প্রথম অভিনীত সিনেমায় বলিউড বাদশার নায়িকা হওয়ার আনন্দে উচ্ছ্বসিত ওয়ালুসকা বলেই ফেলেছিলেন ‘তার সঙ্গে অভিনয়ের সময় আমার বিশ্বাস হচ্ছিল না, মনে হচ্ছিল আমি চমৎকার একটি স্বপ্ন দেখছি, ছবিটি মুক্তি পেয়েছে এর মধ্যে তারপরেও যেন আমার স্বপ্নের ঘোর কাটছে না’।

‘ফ্যান’ ছবির ওয়ালুসকা ডি সুজাই শুধু নয় এর আগে আরো অনেক নবাগতা নায়িকার সৌভাগ্য হয়েছে কিং খানের বিপরীতে অভিনয়ের মাধ্যমে রুপালি পর্দায় অভিষেকের। আজকের বলিউড ডিভা দীপিকা পাড়–কোন এবং আনুশকা শর্মা প্রথম অভিনীত ছবিতেই শাহরুখ খানকে নায়ক হিসেবে পেয়েছিলেন। ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিতে দীপিকা পাড়–কোন নায়িকারূপে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। এ ছবিতে তিনি ডাবল রোলে অভিনয় করেছিলেন। বলাবাহুল্য, অভিনীত দুটি চরিত্রেই তিনি বিপরীতে শাহরুখকে পর্দাপ্রেমিক হিসেবে পেয়েছিলেন। দীপিকা পাড়–কোন শাহরুখ খানের সাথে ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’, ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন। ৩৫ বছর বয়সী এই জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী বর্তমানে আবার অ্যাকশন ধাঁচের সিনেমা ‘পাঠান’ এ শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় করছেন।

একইভাবে আনুশকা শর্মাও তার প্রথম অভিনীত সিনেমা ‘রাবনে বানা দে জোড়ি’ তে শাহরুখকে নায়ক হিসেবে পেয়েছিলেন। আনুশকা শর্মার রুপালি পর্দায় অভিষেক শাহরুখের বিপরীতে। এরপর তারা দুজন জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছেন ‘জব তক হ্যায় জান,’ ‘জব হ্যারি মিট সেজাল’ এবং ‘জিরো’ ছবিতে। দীপিকা এবং আনুশকার কপাল খুলে গিয়েছিল কিং খানের ব্লকবাস্টার সিনেমায় নায়িকা হওয়ার সুবাদে। তারও আগে ‘চাক দে ইন্ডিয়া’ ছবিতে শাহরুখ খানের সঙ্গে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল বিদ্যা মালওয়াদের। এরপর তাকে আরো বেশ কয়েকটি সিনেমায় দেখা গেলেও বলিউডে বিদ্যার ক্যারিয়ার তেমন এগোয়নি। তবে ‘চাক দে ইন্ডিয়া’ ছবিতে শাহরুখ খানের সঙ্গে অভিনয়ের কারণে সবার নজর কাড়তে সক্ষম হয়েছিলেন।

২০০৪ সালে মুক্তি পেয়েছিল শাহরুখ খান অভিনীত ‘স্বদেশ’ ছবিটি। কিছুটা ভিন্ন স্বাদের ঐ ছবিতে শাহরুখের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন নতুন মুখ গায়ত্রী যোশি। ঐ ছবিতে শাহরুখের মতো একজন তুখোড় অভিনেতার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চমৎকার অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের আলাদা মনোযোগ আকর্ষণে সক্ষম হয়েছিলেন গায়ত্রী। তবে শেষ পর্যন্ত বলিউডে অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে ধরে রাখতে সক্ষম হননি তিনি। বলিউডের মুভি মুঘল হিসেবে পরিচিত সুভাষ ঘাই পরিচালিত ‘পরদেশ’ ছবিতে বলিউড কিং শাহরুখ খানের বিপরীতে নায়িকা হয়েছিলেন মহিমা চৌধুরী। ওটিই ছিল মহিমার ডেব্যু মুভি অর্থাৎ ‘পরদেশ’ ছবির মাধ্যমে হিন্দি সিনেমার অঙ্গনে পা রেখেছিলেন। শাহরুখের নায়িকা হিসেবে রুপালি পর্দায় আত্মপ্রকাশ বলিউডে মহিমার জন্য একটি বড় আশীর্বাদ ছিল।

ক্যারিয়ার শুরুর পর প্রথম দিকের একটি ছবি ‘কাভি হ্যাঁ কাভি না’ তে শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন সুচিত্রা কৃষ্ণমূর্তি। সুচিত্রা মূলত একজন গায়িকা, মডেল এবং ভিজে হলেও ‘কাভি হ্যাঁ কাভি না’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল। ১৯৯৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ঐ ছবিতে শাহরুখ খানকে নায়ক হিসেবে পেয়েছিলেন। যদিও তখন তিনি বলিউডের শীর্ষ জনপ্রিয় অভিনেতা হয়ে ওঠেননি। ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ত্রিমূর্তি’ ছবিতে শাহরুখ খানের নায়িকা হিসেবে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল সুন্দরী অঞ্জলী জাঠোরের। অ্যাকশন ধাচের ঐ ছবিতে জ্যাকি স ফ এবং অনিল কাপুর শাহরুখের বড় ভাইয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। যদিও জ্যাকি ও অনিলের বিপরীতে কোনো রোমান্টিক নায়িকা ছিল না, তবে শাহরুখের পর্দা প্রেমিকা হিসেবে ‘ত্রিমূর্তি’ ছবিতে নতুন মুখের নায়িকা অঞ্জলী জাঠোর দর্শকদের বিশেষ মনোযোগ আকর্ষণ করেছিলেন।

সাধারণভাবে এখন শাহরুখ খান যে অবস্থানে আছেন সেখানে তার বিপরীতে প্রতিষ্ঠিত জনপ্রিয় ব্যস্ত নায়িকার কথা বিবেচনা করেন অধিকাংশ চিত্রনির্মাতাই। গত চার পাঁচ বছরে কিংবা দুই দশকে শাহরুখ খান যে ছবিগুলো করেছেন তাতে ঘুরে ফিরে কাজল, রানী মুখার্জি, ঐশ্বরিয়া রাই, সুস্মিতা সেন, কারিনা কাপুর, দীপিকা পাড়–কোন, প্রীতি জিন্তা প্রমুখকে দেখা গেছে শাহরুখের বিপরীতে। কিং খান এর নায়িকা হতে পারলে এখন যে কোনো শীর্ষ অভিনেত্রী নিজেকে ধন্য ভাবেন।

বলিউডে শাহরুখ খানের মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম ছবি ‘দিওয়ানা’য় তার নায়িকা ছিলেন দিব্যা ভারতী। এছাড়াও ‘দিল আশনা হ্যায়’ ছবিতেও কিং খানের নায়িকা হয়েছিলেন দিব্যা। ‘চমৎকার’ ছবিতে উর্মিলা মাতন্ডকারের সঙ্গে পর্দায় জুটি বেঁধেছিলেন শাহরুখ। দীপা শাহী মূলধারার বাণিজ্যিক ছবির অভিনেত্রী না হলেও তার বিপরীতে ‘মায়া মেম সাব’ ও ‘ওহ ডার্লিং ইয়ে হ্যায় ইন্ডিয়া’ ছবি দুটিতে অভিনয় করেছেন।

বলিউডের আরেক অভিনেত্রী নাগমাকে শাহরুখের বিপরীতে ‘কিং আঙ্কেল’ ছবিতে দেখা গেছে। ‘গুড’ এবং ‘বোম্বে’ ছবি দুটিতে শাহরুখের নায়িকা ছিলেন মনীষা কৈরালা। ‘জমানা দিওয়ানা’ ছবিতে রাভিনা ট্যান্ডন, ‘বাদশা’ ছবিতে টুইংকেল খান্না, ‘বাজিগর’ ছবিতে শিল্পা শেঠি, ‘চাহাত’ ছবিতে পূজা ভাট’, ‘জোশ’ ছবিতে প্রিয়া গিল কিং খানের বিপরীতে পর্দায় এলেও জুটি হিসেবে তারা তেমন প্রভাব ফেলতে পারেননি দর্শক মনে। সুন্দরী অভিনেত্রী সোনালি বেন্দ্রে ‘ডুপ্লিকেট’ এবং ‘ইংলিশ বাবু দেশি মেম’ ছবি দুটিতে শাহরুখের পর্দাপ্রেমিকা সেজেছিলেন বলিউডের একদার শীর্ষ অভিনেত্রী শ্রীদেবী তার সাথে মাত্র একটি ছবি ‘আর্মি’তে অভিনয় করেছিলেন।

 শাহরুখ খান তার ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে জুহি চাওলার সাথে চমৎকার সফল পর্দা জুটি গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছিলেন। তারা দুজন একসঙ্গে ‘রাজু বান গ্যায়া জেন্টেলম্যান’, ‘ডর’, ‘ইয়েস বস’, ‘রামজানে, ‘ফির ভি দিল হ্যায় হিন্দুস্থানি’, ‘ওয়ান টু কা ফোর’ ছবিগুলো করেছেন। শাহরুখ জুহির সাথে পার্টনারশিপে গড়ে তুলেছিলেন তার চলচ্চিত্র প্রযোজনা সংস্থা রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট। মাধুরী দীক্ষিতের ক্যারিয়ার যখন তুঙ্গে তখন শাহরুখের বাজারও রমরমা। তারা দুজন একসঙ্গে আনজাম, ‘হাম তুমহারে হ্যায় সানাম’, ‘কোয়লা’ ‘দেবদাস’ ও ‘দিল তো পাগল হ্যায়’ ছবিগুলোতে অভিনয় করেছেন। ‘জোশ’ ছবিতে শাহরুখের বোন সাজলেও ঐশ্বরিয়া রাই ‘দেবদাস’ এবং ‘মোহাব্বাতে’ ছবিতে রোমান্টিক জুটি হয়েছেন।

প্রীতি জিনতা শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন ‘দিল সে,’ ‘কাভি আলবিদা না ক্যাহনা’, ‘কাল হো না হো’ এবং ‘বীরজারা’ ছবিগুলোতে। একদার জনপ্রিয় অভিনেত্রী কারিশমা কাপুরকে কিং খানের বিপরীতে দেখা গেছে ‘দিল তো পাগল হ্যায়’ ছবিতে। কারিশমার ছোটবোন কারিনা কাপুর ‘অশোকা’ এবং ‘রা.ওয়ান’ ছবিতে শাহরুখের নায়িকা হয়েছেন। আজকের প্রজšে§র জনপ্রিয় অভিনেত্রী আলিয়া ভাটকে কিং খানের সাথে ‘ডিয়ার জিন্দেগি’ ছবিতে দেখেছেন দর্শক। সাবেক বিশ্বসুন্দরী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ‘ডন’ ফ্র্যাঞ্চাইজির দুটি ছবিতেই শাহরুখের পর্দাসঙ্গিনী হয়েছেন।’

ক্যারিয়ারের দুই যুগের বেশি সময় পার করার পর শাহরুখ আজও বলিউডের অন্যতম সেরা সুপারস্টার। সম্প্রতি দক্ষিণী জনপ্রিয় নায়িকা নয়নতারাকে পেয়েছেন তিনি নতুন ছবি ‘লায়ন’ এ। কিং খানের নায়িকা হিসেবে বলিউডে অভিষেক হচ্ছে দক্ষিণী সিনেমার লেডি সুপারস্টার নয়নতারা। এটি বেশ সাড়া তুলেছে বলিউডে। নয়নতারা কিং খানের বিপরীতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে ভীষণভাবে আপ্লুত। ওদিকে পরিচালক রাজকুমার হিরানির আগামী ছবিতে শাহরুখ খান অভিনয় করছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। ঐ ছবিতে তার বিপরীতে নায়িকা হবেন তাপসি পান্নু- তেমনটি জানা গেছে।

মানবকণ্ঠ/এমএইচ



poisha bazar

ads
ads