‘গজলে আমাদের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল’

জনপ্রিয় গজলশিল্পী মেসবাহ আহমেদ
জনপ্রিয় গজলশিল্পী মেসবাহ আহমেদ

  • হাসনাত কাদীর
  • ২০ নভেম্বর ২০২০, ০৯:২৬

তিনি সুরের মানুষ, তিনি গানের মানুষ। আরাধনামগ্ন এক শিল্পী যিনি, তিনি জনপ্রিয় গজলশিল্পী মেসবাহ আহমেদ। উপমহাদেশের প্রখ্যাত গজল ব্যক্তিত্ব জগজিৎ সিং ও দেশসেরা শাস্ত্রীয় সঙ্গীতজ্ঞ ওস্তাদ নিয়াজ মোহাম্মদ চৌধুরীর এই শিষ্য দুই দশকের বেশি সময় গজলে মুগ্ধ করছেন শ্রোতাদেরকে। তাঁর সঙ্গে কথা বলেছেন- হাসনাত কাদীর

কেমন আছেন আর কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?
গান লিখছি, সুর করছি আর ভালো আছি। প্রথমবারের মতো ফোক গান করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। সুরে সুরে সঙ্গ দিচ্ছি শ্রোতাদেরকে। তবে আছি মূলৎ একজন যোগ্য গায়ক হওয়ার সাধনায়।

গজল শিল্পী কেন হলেন?
আমি কি কিছু হতে পারি? চাইলেই কেউ শিল্পী হতে পারে না। ‘আর্টিস্ট হোতা নেহি- পয়দা হোতি হে’। শিল্পী সত্তা আসলে সৃষ্টিকর্তার স্বর্গীয় উপহার। তিনি যাকে চান, তাকেই শিল্পী বানান। আমি জানি না আমি আসলেই শিল্পী কি না। তবে যদি হয়ে থাকি, সেটাকে সৃষ্টিকর্তার প্রেমপূর্ণ উপহার বলেই মনে করি।

বাংলাদেশে গজল চর্চার ভবিষ্যৎ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন কী?
প্রচুর ছেলে-মেয়ে গজলের চর্চা করছে। আমরা যারা গাইছি অনেককেই দেশ-বিদেশের শ্রোতারা ভালোবেসে গ্রহণ করেছেন। গজলে আমাদের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল বলেই মনে করি।

সম্প্রতি বশির আহমেদের ৮১তম জন্মদিনের বিশেষ আয়োজনে গাইলেন।
বশির আহমেদের লেখা 'কুছ আপনি কেহিয়ে, কুছ মেরি শুনিয়ে' গেয়েছি। রবিন ঘোষের সঙ্গীত পরিচালনায় এটি 'তালাশ' ছবিতে ব্যবহৃত হয়েছিল। আমার মায়ের খুব পছন্দের। এরকম একটি আয়োজনে অংশগ্রহণ করতে পেরে সম্মানিত বোধ করছি। আয়োজনের জন্য শ্রদ্ধেয় বশির আহমেদের দুই শিল্পী-সন্তান হোমায়েরা বশির ও রাজা বশিরকে আন্তরিক শুভেচ্ছা। সেই সঙ্গে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি আমার ওস্তাদ দেশসেরা শাস্ত্রীয় সঙ্গীতজ্ঞ নিয়াজ মোহাম্মদ চৌধুরীকে। তিনি এ বছর ‘বশির আহমেদ সম্মাননা পদক-২০২০’ পেয়েছেন।

দীর্ঘ সময় দিলেন, জীবন সুরেলা থাকুক।
আপনাকে ও মানবকণ্ঠকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

মানবকণ্ঠ/এইচকে



poisha bazar

ads
ads