‘সিনেমার আগের যে জায়গাটা ছিল সেটা নেই’

মানবকণ্ঠ
আবু হেনা রনি

  • ২৬ আগস্ট ২০২০, ১১:১৪

মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার সিজন-৬ এর চ্যাম্পিয়ন আবু হেনা রনি একাধারে কমেডিয়ান, উপস্থাপক এবং অভিনেতা। বাংলাদেশে স্ট্যান্ড-আপ কমেডিকে আরও জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে কাজ করছেন নিরলস। প্রতিষ্ঠা করেছেন বাংলাদেশ কমেডি ক্লাব। বর্তমান ব্যস্ততা এবং স্ট্যান্ড-আপ কমেডি নিয়ে কথা বলেছেন আজকের ‘৭ প্রশ্নে তারকাজীবন বিভাগে’। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- রেজা শাহীন

স্ট্যান্ড-আপ কমেডি নিয়ে আপনার পরিকল্পনা কি?
বাংলাদেশ কমেডি ক্লাব নামে আমরা একটা স্ট্যান্ড-আপ কমেডি ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেছি। এটির আন্ডারে ৭টি বিভাগীয় ক্লাব রয়েছে। আবার এই বিভাগীয় ক্লাবগুলোর আন্ডারে জেলা পর্যায়ে ক্লাব রয়েছে। ক্লাবগুলোতে স্যান্ড-আপ কমেডির চর্চা হয়। এখানে থেকেই অনেকে মিরাক্কেল, হা-শোর মতো বিভিন্ন টিভি অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছে।

মীরাক্কেলের গ্রুমার হওয়ার প্রস্তাব পেয়েও ফিরিয়ে দিলেন?
সে সময়টাতে দেশে বিভিন্ন কাজের সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছিলাম যেটা ছেড়ে ওখানে থাকা সম্ভব হয়নি। তা ছাড়া নিজ দেশে স্ট্যান্ড-আপ কমেডি নিয়ে কিছু একটা করব বলেই প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দিয়েছি। ফ্যামিলির কাছাকাছি থাকতে চেয়েছি সব সময়।

বাংলাদেশে স্ট্যান্ড-আপ কমেডির ভবিষ্যৎ কেমন দেখছেন?
যেকোনো শিল্প হুট করে প্রফেশনাল জায়গায় পৌঁছাতে পারে না। তার জন্য সময়ের দরকার আছে। বাইরের দেশগুলোতে স্যান্ড-আপ কমেডি বড় একটা জায়গা দখল করে আছে। অস্কার অনুষ্ঠানের ৭০ ভাগ উপস্থাপনায় থাকেন কমেডিয়ানরা। ভারতে স্ট্যান্ড-আপ কমেডির অনেক শো হচ্ছে। ওরা ভালো করছে। এক সময় বাইরের দেশগুলোতে এ রকমটি ছিল না। ধীরে ধীরে জায়গাটা তৈরি হয়েছে। আমি ২০১২ সালের দিকে মাসে মাত্র ৪ থেকে ৫টি অনুষ্ঠান করার সুযোগ পেয়েছি। পরবর্তী সময়ে সেই সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে। দিন দিন বাংলাদেশেও স্ট্যান্ড-আপ কমেডির প্ল্যাটফর্ম বিস্তৃত হচ্ছে। সেদিন বেশি দূরে নয় যেদিন বাংলাদেশে স্ট্যান্ড-আপ কমেডিকে শিল্প হিসেবে দেখা হবে।

সিনেমায় কাজের অভিজ্ঞতা কেমন?
সিনেমায় কাজের অভিজ্ঞতা খুব একটা ভালো নয়। আমি যে রকম চেয়েছি ও রকম স্কোপ পাইনি। আমাদের এখনকার সিনেমাগুলোর স্টোরি নায়ক-নায়িকাকে ঘিরেই আবর্তিত হয়। সাইড ক্যারেক্টারগুলো স্ক্রীনে তেমন ফুটিয়ে তোলা হয় না। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, সিনেমার আগের যে জায়গাটা ছিল সেটা নেই। তবে, পদ্ম পাতার জল সিনেমায় কাজ করে তৃপ্তি পেয়েছি।

বর্তমানে কি কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন?
এনটিভির কমেডি শো হা-শোর উপস্থাপক হিসেবে কাজ করছি। প্রায় ৭ মাস হলো হা-শোর একটা সিজন শেষ হলো। এটি আমার একটি ভালো অভিজ্ঞতা ছিল। কারণ এই হা-শোর ফার্স্ট সিজনে পারফর্মার ছিলাম। আর ফিফথ সিজনে উপস্থাপক হিসেবে কাজ করলাম। এ ছাড়া বাংলাভিশনে টক ঝাল মিষ্টি নামে একটি রেগুলার অনুষ্ঠান করছি।

বুনো পায়রা নামে আপনার একটি সংগঠন আছে। সংগঠনটি কি নিয়ে কাজ করছে?
বুনো পায়রা স্ট্যান্ড-আপ কমেডি নিয়ে কাজ করে। এ ছাড়াও স্ক্রিপ্ট রাইটিং, ডিরেকশন, কন্টেন্ট মেকিং সহ মিডিয়া সংক্রান্ত নানা কাজ করে থাকে।

নতুনদের উদ্দেশে কি বলার আছে?
নতুনদের উদ্দেশে বলব, গতানুগতিক ধারা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। প্রচুর বই পড়তে হবে, নিয়মিত পত্রিকা পড়তে হবে। উপস্থাপনার ভঙ্গিটা ভিন্ন হতে হবে। অন্য কারো মতো হয়ে গেলে এগুতে পারবে না। সমসাময়িক বিষয়ের খোঁজ রাখতে হবে। মোটকথা অনেক বিষয় জানতে হবে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে 



poisha bazar

ads
ads