আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন সৈয়দ সালাহউদ্দীন জাকী

মানবকণ্ঠ
সৈয়দ সালাহউদ্দীন জাকী

poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৮ জুলাই ২০২০, ১২:৫৯,  আপডেট: ২৮ জুলাই ২০২০, ১৩:০২

ঢাকায় প্রথমবারের মতো শুরু হচ্ছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইয়ুথ ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল-২০২০। আগামী ২৯ জুলাই শুরু হয়ে উৎসবটি শেষ হবে ৩১ জুলাই। বিশ্বব্যাপী লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধির বিষয়টি মাথায় রেখে উৎসবের সব কার্যক্রম অনলাইন প্লাটফর্মেই সীমাবদ্ধ থাকছে।

এটি আয়োজন করেছে স্টেপ ফর সিনেমা নামে একটি প্রতিষ্ঠান। আয়োজকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বেশ জোরেশোরেই চলছে প্রস্তুতির কাজ। নতুন খবর হলো ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইয়ুথ ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল-২০২০ এর আয়োজনে খ্যাতিমান চলচ্চিত্র নির্মাতা সৈয়দ সালাহউদ্দীন জাকীকে দেয়া হবে আজীবন সম্মাননা।

সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকী একজন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক এবং কাহিনীকার। তিনি ১৯৮০ সালের চলচ্চিত্র ঘুড্ডির কাহিনী লিখে বাংলাদেশ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতার পুরস্কার লাভ করেন। আরো বেশকিছু চমক থাকছে এই আয়োজনে। একে একে সামনে আসবে সেগুলো। উৎসব চেয়ারপারসন অনন্যা রুমা বলেন, ‘৪৫টি দেশের ৬৫৬টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছে এবারের উৎসবে। সেখান থেকে ২৪টি দেশের ৫৮টি চলচ্চিত্রকে আমরা মনোনয়ন দিতে পেরেছি।’

উৎসব পরিচালক দীপান্ত রায়হান বলেন, ‘বাছাইকৃত চলচ্চিত্রের মধ্য থেকে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র, শ্রেষ্ঠ পরিচালক, শ্রেষ্ঠ নীরিক্ষামূলক চলচ্চিত্র, শ্রেষ্ঠ বাংলা চলচ্চিত্র, শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রহণ, শ্রেষ্ঠ অভিনেতা-অভিনেত্রী, শ্রেষ্ঠ আবহ সংগীত এবং শ্রেষ্ঠ সম্পাদনা বিভাগে পুরস্কার প্রদান করা হবে।’ উৎসবের বিচারকের দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশের তরুণ নির্মাতা শাহনেওয়াজ কাকলী, মাহদী হাসান, সংগীত পরিচালক এসআই টুটুলসহ ভারত, নেপাল, ইরান, কানাডা, নর্থ ম্যাসিডোনিয়া এবং তুরস্কের আরো সাতজন চলচ্চিত্র পরিচালক।

উৎসব চলাকালে ফেসবুক লাইভে অনুষ্ঠিত হবে নিউ নরমাল টাইমের চলচ্চিত্র ও চলচ্চিত্র সাংবাদিক বিষয়ক মুক্ত আলোচনা। আলোচনায় অংশ নেবেন নির্মাতা শামীম আখতার, গোলাম রাব্বানী বিপ্লব, মেজবাউর রহমান সুমন, সাংবাদিক রেজানুর রহমান, তানভীর তারেক প্রমুখ। ২৯ থেকে ৩১ জুলাই প্রতিদিন বেলা ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে উৎসব। চলচ্চিত্র প্রদর্শন ছাড়াও সব আয়োজন দেখা যাবে স্টেপ ফর সিনেমা, ডিএসপি, বাংলামেইল, চিন্তাশীল, ফ্রাইডে থিয়েটার, টুরিস্ট ক্লাব বাংলাদেশের ফেসবুক পেজে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে





ads






Loading...