'আদিম' নির্মাতা যুবরাজ শামীমের 'হাজত'

মানবকণ্ঠ
'আদিম' নির্মাতা যুবরাজ শামীমের 'হাজত' থেকে স্থিরচিত্র - মানবকণ্ঠ

poisha bazar

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • ০৯ জুলাই ২০২০, ১৬:০৯,  আপডেট: ০৯ জুলাই ২০২০, ১৬:২১

তরুণ চলচ্চিত্রকার যুবরাজ শামীমের পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র 'হাজত'র শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই ১৬ দিনে সিনেমাটির দৃশ্য ধারণ করা হয়। এখন চলছে সম্পাদনার কাজ।

নির্মাতা যুবরাজ শামীম মানবকণ্ঠকে বলেন, 'হাজত' মূলত অপরাধবোধের গল্প। এই সিনেমার প্রধান চরিত্র সাদেক একটি ভয়ংকর অপরাধ করে। আশপাশের কেউ তা জানে না। ফলে তার জীবন স্বাভাবিকভাবেই পার হবার কথা। কিন্তু সাদেকের ভেতরের অপরাধবোধ তীব্র যন্ত্রণার জন্ম দেয়। সাদেক সেই যন্ত্রণা থেকে মুক্তির নানা উপায় খুঁজতে থাকে।

অপরাধ করে সাদেক দুনিয়ার হাজত থেকে পার পেলেও নিজের ভেতরের হাজতে বন্দী হয় বলে সিনেমাটির এমন নামকরণ।

সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন- সাদেক, বাদশা, দুলাল, সোহাগী, স্বপন প্রমুখ। চিত্রগ্রহণ করেছেন আনন্দ সরকার ও যুবরাজ শামীম। গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেছেন নির্মাতা নিজেই।

নির্মাতা যুবরাজ শামীমের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র 'আদিম'। সেখানে বস্তির অপেশাদার অভিনেতা-অভিনেত্রীরা যে যার নিজের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। গণ অর্থায়নে নির্মিত সিনেমাটির কাজ একদম শেষ ধাপে আছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে রিলিজের পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান নির্মাতা।

শামীম বলেন, 'হাজত' মূলত 'আদিম'র সিক্যুয়েল। তবে আদিম এবং হাজত পুরোপুরি ভিন্ন সিনেমা। মানুষ প্রবৃত্তির তাড়নায় বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ে আর সেই অপরাধের গল্প নিয়েই 'আদিম' নির্মিত হয়েছে। অন্যদিকে অপরাধ করার পর অপরাধীর মানসিক অবস্থার গল্প নিয়ে 'হাজত' নির্মিত হচ্ছে।

তিনি জানান, আমার কাছের কয়েকজন মানুষের কাছ থেকে টাকা-পয়সা এবং আমার এক বন্ধুর কাছ থেকে ক্যামেরা নিয়ে 'হাজত'র শুটিং করেছি। সেই অর্থে আদিমের মতো এটিও গণ অর্থায়নের সিনেমা।

করোনা পরিস্থিতিতে শুটিং সম্পর্কে যুবরাজ শামীম বলেন, আমরা শুটিং করার ক্ষেত্রে যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা মেইনটেইন করেছি। তাছাড়া 'হাজত' যেহেতু একজন চরিত্রের গল্প, সাথে কয়েকটি দৃশ্যে কয়েকজন সাপোর্টিং চরিত্রে অভিনয় করেছেন। আর আমাদের চারজনের ছোট শুটিং ইউনিট ছিলো। তাই সবমিলিয়ে শুটিং’র সময় আমরা খুব বেশি জটিলতার সম্মুখীন হইনি।

মানবকণ্ঠ/এইচকে

 





ads






Loading...