গুরুতর অসুস্থ নায়ক জাভেদ, কাল অস্ত্রোপচার

ইতালিতে করোনায় আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু
- ছবি : সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০:০২

একসময়ের সুপারডুপার হিট চিত্রনায়ক জাভেদ গুরুতর অসুস্থ। আগামীকালের মধ্যে তাঁর অস্ত্রোপচার করা হবে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

তিনি বলেন, জাভেদ ভাইয়ের প্রস্রাবে সমস্যা। আগামীকাল বাংলাদেশ মেডিকেলে তাঁর অস্ত্রোপচার করা হবে। আমরা তাঁর জন্য দোয়া চাচ্ছি। শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে তাঁর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। দ্রুত তাঁর সুস্থ্যতা কামনা করছি।

চলচ্চিত্রের রাজকুমারখ্যাত জাভেদ ১৯৭০ থেকে ১৯৮৯ পর্যন্ত নায়কদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনাতাদের একজন। নিজে নাচতেন ও নায়িকাদের নাচিয়ে পর্দা কাঁপিয়ে তুলতেন।

তাঁর জন্ম ১৯৪৪ সালে আফগানিস্তানে। পরে তাঁরা পেশোয়ার হয়ে পাঞ্জাবে আসেন। শৈশবে তাঁর প্রিয় নায়ক ছিলেন দিলীপ কুমার। বাবা ছিলেন ধর্মপরায়ণ। তিনি চাইতেন ছেলেরা ব্যবসায়ী হবে, নয়তো চাকরি করবে।

কিন্তু জাভেদের ওসব দিকে আদৌ মন ছিল না। কীভাবে অভিনেতা হওয়া যাবে এ নিয়েই তিনি ভাবতেন। সিনেমা দেখা, গান শোনা নিয়েই মগ্ন থাকতেন। এ নিয়ে পরিবারের সঙ্গে তাঁর দ্বন্দ্ব হয়। সবশেষে বাবা-মায়ের কাছে না বলেই জাভেদ পাঞ্জাব ছেড়ে চলে আসেন তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমানে বাংলাদেশ) ঢাকায়।

জাভেদের শতকরা ৯৯ ভাগ ছবিই সফল হয়েছিল। নায়ক হিসেবে তার প্রতিটি ছবিই ছিল সুপারহিট। তার অভিনীত ‘মালকা বানু’, ‘পায়েল’, ‘কাজল রেখা’, ‘নিশান’, ‘সাহেব বিবি গোলাম’সহ কত ছবি দেখার জন্য দর্শকের ভিড় উপচে পড়ত।

কালু খাঁর চরিত্রে অভিনয় করে তিনি বাঘের খাঁচায় লাফিয়ে পড়েছিলেন। দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করে জাভেদ দুই ভাইয়ের ভূমিকায় ছিলেন। তার নায়িকা ছিল ববিতা। ‘নিশান’ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পরে দেশব্যাপী হৈচৈ পড়ে গিয়েছিল জাভেদকে নিয়ে।

চলচ্চিত্রে কাজ না করলেও এখনও স্টেজ শো’তে পারফর্ম করেন এ নায়ক। তিনি বলেন, ভালো স্টেজ শোর প্রস্তাব এলে আমি পারফর্ম করার চেষ্টা করি।’ অভিনয়ের পাশাপাশি একটি চলচ্চিত্র প্রযোজনাও করেছেন জাভেদ। নাম ‘বাহরাম বাদশা’।

শুধু নায়ক হিসেবে নয়, নৃত্য পরিচালক হিসেবেও একসময় তিনি রাজত্ব করেছেন ঢাকাই ছবিতে।

নায়ক হিসেবে জাভেদ অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলো হলো- মালকা বানু, অনেক দিন আগে, শাহাজাদা, রাজকুমারী চন্দ্রবান, সুলতানা ডাকু, আজো ভুলিনি, কাজল রেখা, সাহেব বিবি গোলাম, নিশান, বিজয়িনী সোনাভান, রূপের রানী, চোরের রাজা, তাজ ও তলোয়ার, নরমগরম, তিন বাহাদুর, জালিম, চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা, রাজিয়া সুলতানা, সতী কমলা, বাহারাম বাদশা, আলাদিন আলী বাবা, সিন্দাবাদ প্রভৃতি সিনেমায়।

মানবকণ্ঠ/এইকে




Loading...
ads






Loading...