ঢাকায় আন্তর্জাতিক অভিবাসন চলচ্চিত্র উৎসব সোমবার

ঢাকায় আন্তর্জাতিক অভিবাসন চলচ্চিত্র উৎসব সোমবার
ঢাকায় আন্তর্জাতিক অভিবাসন চলচ্চিত্র উৎসব সোমবার - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩০ নভেম্বর ২০১৯, ২২:৪২

ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক অভিবাসন চলচ্চিত্র উৎসব (জিএমএফএফ)। দিনব্যাপী এই উৎসবে ১৫টি চলচ্চিত্র দেখানো হবে। সোমবার (২ ডিসেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে এই চলচ্চিত্র উৎসব।

শনিবার জাতিসংঘের অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা (আইওএম) সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

এই আন্তর্জাতিক অভিবাসন চলচ্চিত্র উৎসবে অভিবাসন বিষয়ে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের সমস্যা সম্ভাবনা তুলে ধরা হবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সহায়তায় এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদকে সাথে নিয়ে আইওএম বাংলাদেশ এই উৎসবটির আয়োজন করছে।

আয়োজক সংস্থাটি আশা করছে, অভিবাসীদের নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রগুলো দর্শকের মনে গভীর সহানুভূতি জাগিয়ে তুলবে। একইসাথে অভিবাসীদের বাস্তবতা, প্রয়োজন, দৃষ্টিভঙ্গি এবং জীবনযাপন বুঝতে সাহায্য করবে এই চলচ্চিত্র উৎসব।

জিএমএফএফ-এর মূল উদ্দেশ্য হলো, চলচ্চিত্রকে শিক্ষার একটি মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে সামাজিক সমস্যাগুলোর প্রতি মনোযোগ আকর্ষণ করা। যাতে অভিবাসীদের প্রতি আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি এবং আচরণকে প্রভাবিত করে। একই সাথে চলচ্চিত্রের মাধ্যমে মানুষের মাঝে আলোচনা ও চিন্তার একটি জায়গা তৈরি করে দেয়ার জন্য এই আয়োজন।

প্রসঙ্গত, অনেক আগ থেকেই চলচ্চিত্র তথ্য, বিনোদন, শিক্ষা ও আলোচনার মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। শক্তিশালী এই মাধ্যমকে ব্যবহার করে মানুষের কাছে অভিবাসন ক্ষেত্রের নানা দিক তুলে ধরার লক্ষ্যে ২০১৬ সাল থেকে জাতিসংঘ অভিবাসন সংস্থা-আইওএম বৈশ্বিক অভিবাসন বিষয়ক চলচ্চিত্র উৎসব-আয়োজন করছে।

এ বছর বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে পেশাদার বা উদীয়মান চলচ্চিত্র নির্মাতাদের ৬০০টিরও বেশি চলচ্চিত্র এ উৎসবে জমা পড়েছে। এর মধ্য থেকে একটি স্বনামধন্য বিচারক পর্ষদ ৩০টি চলচ্চিত্র নির্বাচন করেছেন, যা পৃথিবীর ১০০টি দেশে প্রদর্শিত হচ্ছে। ঢাকার উৎসবে দেখানো হচ্ছে ১৫টি চলচ্চিত্র।

দিনব্যাপী এই উৎসবে সরকারের প্রতিনিধি, নীতিনির্ধারক, শিক্ষার্থী, গবেষক, বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা, বিশিষ্ট অভিনয় শিল্পী, উন্নয়ন-অংশীদার, জাতিসংঘের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ এই উৎসবে যোগ দেবেন।

সকাল ৯টায় উৎসবটি শুরু হয়ে শেষ হবে রাত ৯টায়। এর মধ্যে সকাল ১০টায় এবং বিকেল ৫ টায় ‘চলচিত্র ও অভিবাসন’ নিয়ে দু’টি আলোচনা পর্ব থাকছে। উৎসবটি সবার জন্য উন্মুক্ত।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads





Loading...