বর্তমান নিয়েই বেশি ভাবেন সুজানা

মানবকণ্ঠ
সুজানা - ছবি : সংগৃহীত।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:৫২

দেশীয় শোবিজের অনিন্দ্য সুন্দরী মডেল-অভিনেত্রী সুজানা জাফর। বিজ্ঞাপন ও নাটকে একটা সময় টানা ব্যস্ত সময় পার করেছেন তিনি। তার অভিনীত বেশিরভাগ মিউজিক ভিডিও হয়েছে দর্শকনন্দিত। মাঝখানে শোবিজ থেকে দূরে রেখেছেন নিজেকে। প্রায় দুই বছরের বিরতি ভেঙে গেল ঈদে একটি টেলিছবিতে অভিনয় করেন। ‘থাকো মেঘ হয়ে’ নামে প্রচারিত এই টেলিছবিতে তার বিপরীতে ছিলেন ইরফান সাজ্জাদ। পরিচালনা করেছেন মাহমুদুর রহমান হিমি। বর্তমানে তার ব্যস্ততা ব্যবসাকে ঘিরে। ব্যবসার কাজে দুবাই ছিলেন।

৫ নভেম্বর মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন। রাজধানীর বনানীতে ‘সুজানাস ক্লোজেট’ নামে একটা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে তার। প্রতিষ্ঠানটির অধিকাংশ পণ্য দেশের বাইরে থেকে সংগ্রহ করা হয়। যে কারণে দুবাই যাওয়া। সুজানা জানালেন, ব্যবসা ছাড়াও বিভিন্ন বিজনেস এক্সপোতে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পণ্যের প্রদর্শনী নিয়ে ব্যস্ত আছি। কিছুদিন আগে চট্টগ্রামে ওয়েডিং এক্সপোতেও প্রদর্শনী করেছি। ব্যবসা নিয়ে বেশকিছু পরিকল্পনা আছে তার। ব্যবসার কাজে ইদানীং বেশি ছোটাছুটিও করছেন। একটু ফ্রি হয়ে আগামী বছর আবার কাজে ফিরবেন বলে জানান দিয়েছেন।

এদিকে নিজের ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়ার কথা উল্লেখ করে থানায় জিডি করেছেন মডেল ও অভিনেত্রী সুজানা জাফর। তিনি বলেছেন অসৎ উদ্দেশ্য সাধনের জন্য অসাধু ব্যক্তিরা আমার আইডি হ্যাক করেছে। তদন্ত করে দোষী খুঁজে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। আইডি হ্যাক হওয়ার কারণে গত কয়েকদিন ধরেই ফেসবুকে পাওয়া যাচ্ছে না সুজানাকে। যেটি এখন তার নিয়ন্ত্রণে নেই। আইডি হারিয়ে বিপাকে রয়েছেন এই অভিনেত্রী।

অবশ্য নিরাপত্তার কারণে সুজানা ইতিমধ্যে মিরপুর মডেল থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেছেন। জিডি নাম্বার ১৬৪৫। জিডি করা ছাড়াও বিষয়টি তিনি জানিয়েছেন প্রশাসনকে। নিয়ন্ত্রণ হারানো ওই আইডি থেকে বিভ্রান্তিকর কোনো পোস্ট, ছবি যদি প্রকাশ হয় সেগুলো এড়িয়ে যেতে বললেন সুজানা। জানালেন আইডিটি উদ্ধারের চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

মিডিয়া এবং ব্যবসার পাশাপাশি সুজানা সামাজিক কর্মকাণ্ডেও যুক্ত রয়েছেন। তিনি প্রতিবন্ধী, এতিম শিশু ও বৃদ্ধাশ্রমের মানুষদের নিয়ে কাজ করে থাকেন। যখন মন চায় তাদের সান্নিধ্যে চলে যান। বন্ধুবান্ধব নিয়ে আড্ডা দিয়ে সময় নষ্ট না করে এসব মানুষদের সঙ্গে সময় পার রাতে বেশি আনন্দ পান সুজানা। বর্তমান নিয়েই সুজানা বেশি ভাবেন। ভবিষ্যতের চিন্তা করেন না। আর ঘর বাঁধার কথাতো নয়ই।

জানালেন, জন্ম-মৃত্যু-বিয়ে আল্লাহর হাতে। হুকুম যখন হবে পৃথিবীর কেউ আটকাতে পারবে না। কোনো মেয়ে জীবনেও বলবে না বিয়ে করব না। প্রতিটি মেয়ে চায় সংসার হবে, বাচ্চা হবে। আমি যতই চাই সেটা তো আমার মর্জি মতো হবে না। অভিভাবকরা যখন বলবেন, আল্লাহর হুকুম না হলে হবে না। এখন যদি আমি কাউকে পছন্দ করি, বিয়ে করতে চাই, আমি যতই চেষ্টা করি না কেন বিয়ে হবে না। তবে বিয়ে করলেও কখনও বড় করে অনুষ্ঠান করব না। টাকা নষ্ট না করে এতিম, প্রতিবন্ধী, বৃদ্ধাশ্রমের মানুষদের নিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান করব। এটা আমার মনের ইচ্ছে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads





Loading...