তেলের দাম আরও কমল


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:২৩

বিশ্ববাজারে আরও কমেছে তেলের দাম। ডলারের শক্তি বৃদ্ধি পাওয়ায় বুধবার এর দাম কমেছে এক শতাংশ। এছাড়া হারিকেন ইয়ানের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের অপরিশোধিত তেলের উৎপাদন হ্রাস করার কারণও রয়েছে।

ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচার ১.০২ ডলার বা ১.২% কমে ব্যারেল প্রতি ৮৫.২৫ ডলার হয়েছে। এছাড়া ইউএস ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (WTI) অপরিশোধিত ফিউচার ৯৭ সেন্ট বা ১.২% কমে ব্যারেল প্রতি ৭৭.৫৩ ডলারে দাঁড়িয়েছে। 

বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান মন্দার কারণে বুধবার বিভিন্ন মুদ্রার তুলনায় ডলারের দাম দুই দশকের শীর্ষে পৌঁছেছে। ডলারে তেল ক্রয়ের ক্ষেত্রে অন্যান্য মুদ্রাধারি দেশগুলোকে আরও ব্যয়বহুল করে তুলেছে। এই কারণে তেলের চাহিদা হ্রাস পেয়েছে।

এশীয় শেয়ার বাজারও ধসের দিকে রয়েছে। কারণ বিশ্বব্যাপী মন্দার আশঙ্কায় বিনিয়োগকারীরা ডলারে নিজেদের নিরাপদ ভাবছেন।

সিএমসি মার্কেটস এর একজন বিশ্লেষক টিনা টেং বলেন, 'বন্ডে বিনিয়োগ বৃদ্ধির কারণে এশিয়ার বাজারগুলো  ক্রমশ: নিস্তেজ হয়ে পড়ছে।'

আমেরিকান পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউটের শিল্পগোষ্ঠীর পরিসংখ্যান উদ্ধৃত করে মঙ্গলবার বলা হয়, ২৩ সেপ্টেম্বর শেষ হওয়া সপ্তাহে মার্কিন অশোধিত তেলের স্টক প্রায় ৪.২ মিলিয়ন ব্যারেল বেড়েছে, যখন পেট্রোল ইনভেন্টরিগুলো প্রায় ১ মিলিয়ন ব্যারেল কমেছে। 

মঙ্গলবার মেক্সিকো উপসাগরে প্রবেশকারী হারিকেন ইয়ানের আঘাত হানার আগে তেলের উৎপাদন কমিয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। 

অফশোর নিয়ন্ত্রক ব্যুরো অফ সেফটি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল এনফোর্সমেন্ট (BSEE) জানিয়েছে, প্রতিদিন প্রায় এক লাখ ৯০ হাজার ব্যারেল তেল বা উপসাগরের মোট ১১% উৎপাদন বন্ধ রয়েছে।

বিএসইই জানিয়েছে, উৎপাদনকারীরা ১৮৪ মিলিয়ন ঘনফুট প্রাকৃতিক গ্যাস বা দৈনিক উৎপাদনের প্রায় ৯% বন্ধ রয়েছে। ১৪টি উৎপাদন প্ল্যাটফর্ম এবং রিগ থেকে কর্মীদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

ইয়ান এই বছরের প্রথম হারিকেন যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেক্সিকো উপসাগরে তেল ও গ্যাস উৎপাদন ব্যাহত করেছে। এই অঞ্চল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ১৫% অপরিশোধিত তেল এবং ৫% প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদন করে।

মানবকণ্ঠ/এআই


poisha bazar