অস্থিতিশীল কাঁচাবাজার, ৭০ টাকার কমে নেই কোনো সবজি


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১২ আগস্ট ২০২২, ১৩:৫৮,  আপডেট: ১২ আগস্ট ২০২২, ১৪:০৬

কেজিতে ৫০ টাকা বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। গত সপ্তাহে ১৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া ব্রয়লার এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ২১০ টাকা কেজি দরে। চড়া দর সবজির বাজারেও। কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে প্রায় সকল সবজির দর। পেঁপে ছাড়া ৭০ টাকার কমে মিলছে না কোনো সবজি।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) রাজধানীর কল্যাণপুর নতুন বাজার, মিরপুর-১ নম্বর বাজার, মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট ঘুরে বাজার দরের এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার মিছিলে এখন অগ্রণী ভূমিকায় রয়েছে কাঁচামরিচ। প্রতি কেজি কাঁচামরিচের জন্য এখন গুনতে হচ্ছে ৩২০ থেকে ৩৫০ টাকা। গতকালও ৩০০ থেকে ৩২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে কাঁচামরিচ। এক রাতের ব্যবধানে কেজিতে বাড়ল ৩০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলেন, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে পরিবহন খরচ বেড়েছে। এর প্রভাব পড়েছে কাঁচাবাজারে।

সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা প্রায় সকল সবজির দাম। বাজার ভেদে টমেটো বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি দরে, কাকরোল ৭০ থেকে ৮০ টাকা, ঢেড়স ৭০ টাকা, বেগুন ৭০-৮০ টাকা, করল্লা ৭০ টাকা, চিচিংগা ৭০ থেকে ৮০ টাকা, শশা ৬০ থেকে ৭০ টাকা, বরবটি ৭০ টাকা, পটল বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা কেজি দরে। 

কচুর মুখী ৮০ টাকা, কচুর লতি ৭০ টাকা, দুন্দল ৭০ টাকা। একই দামে বিক্রি হচ্ছে ঝিঙা। পেঁপে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজি দরে।
ফুল কপি ৫০ টাকা পিস, মিষ্টি কুমড়ার ফালি ২০ তগেকে ৩০ টাকা, কলার হালি ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, লেবুর হালি ৩০ থেকে ৪০ টাকা।

গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা কেজি দরে। ৯০০ থেকে হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে খাসির মাংস।
কেজিতে এক লাফে ৫০ টাকা বেড়ে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২১০ টাকা দরে।

বাজার ভেদে রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ৩৮০ টাকা কেজি দরে। কাতল ৩২০ থেকে ৪০০ টাকা, নলা মাছ ২৪০ থেকে ৩২০ টাকা, তেলাপিয়া মাছ ১৮০ থেকে ২৫০ টাকা, পাঙ্গাশ মাছ ১৪০ থেকে ৩৫০ টাকা, শিং মাছ ৬০০ থেকে ৯০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে।

আকারভেদে চিংড়ি বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ১৫০০ টাকায়, কাচকি ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা ও পাবদা ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা দরে। 

 

মানবকণ্ঠ/পিবি


poisha bazar