ঘোষণা করা হলো দেশের সুপারব্র্যান্ডগুলোর নাম

ঘোষণা করা হলো দেশের সুপারব্র্যান্ডগুলোর নাম
সালমান ফজলুর রহমান

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২১ নভেম্বর ২০২০, ১৩:৫৭

বাংলাদেশের সুপারব্র্যান্ডস ২০২০-২১ বর্ষের নামসমূহ বৃহস্পতিবার এক জমকালো ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঘোষণা করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে আগামী দুই বছর এর জন্য সুপারব্র্যান্ডসের বিশেষ প্রকাশনাও উন্মোচন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত ছিলেন।

সুপারব্র্যান্ডস বিশ্বের সর্বত্র প্রযোজ্য ব্র্যান্ডের বিচারক সংস্থা যা বিগত ২৬ বছরেরও বেশি সময় ধরে বিশ্বের প্রায় ৯০ টি দেশে কাজ করে আসছে। সুপারব্র্যান্ডস দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের জন্য র্সববৃহৎ সাফল্যের প্রতীক হয়ে উঠেছে। সুপারব্র্যান্ডস প্রকাশনাটিতে প্রতিটি ব্র্যান্ডের সুপারব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে ওঠার পেছনের গল্প প্রকাশিত হয়, যা বিজ্ঞাপন, বিপণন, ব্র্যান্ড পরচিালনা, মিডিয়াতে জোষ্ঠ্য ব্যাবস্থাপক সহ শিক্ষাবিদ্গনের জন্য একটি সম্মিলিত প্রকাশনা।

বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী ও ভিজ্যুয়াল আর্টিস্ট নাজিয়া আন্দালিব প্রিমা, পরিচালক ও ক্রিয়েটিভ এডিটর, বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম; প্রতিষ্ঠাতা, বাংলাদশে ক্রিয়েটিভ ফোরাম; প্রেসিডেন্ট, উইমেন ইন লিডারশিপ (উইল) সুপারব্র্যান্ডস বাংলাদেশ ২০২০-২১ প্রকাশনার জন্য "ভিজ্যুয়াল ডায়ালগ" শিরোনামের প্রচ্ছদটি ডিজাইন করেছেন। প্রচ্ছদটির পেছনে অন্তর্নিহিত দর্শন হিসেবে তিনি উল্লেখ করেছেন, " শৈল্পিকতার বহিঃপ্রকাশ একটি ধারণা, যা আমাদের এবং এই মহাবিশ্বের কাছে অজানা। চিত্রকর্ম, রঙ এবং আকারের সম্ভাবনাগুলো চিত্রিত করে। যদিও তারা তুলনামূলকভাবে অজানা।"

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সালমান ফজলুর রহমান, এমপি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা বেসরকারি খাত ও বিনিয়োগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার বলনে, ““আমি সকল সুপারব্র্যান্ড বিজয়ীদের অভিনন্দন জানাতে চাই। এই স্বীকৃতি সমস্ত কর্মীদের কঠোর পরিশ্রমের প্রতিচ্ছবি। সুপারব্র্যান্ড প্রাপ্ত সকল প্রতিষ্ঠানের জন্য এটি তাদের কর্মীদের প্রতি স্বীকৃতি। আজ আমাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য এবং আমার বক্তব্য উপস্থাপন করার সুযোগ দেওয়ার জন্য আমি বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামকে ধন্যবাদ জানাই।”

এছাড়াও সুপারব্র্যান্ডস বাংলাদেশের ম্যনেজিং ডিরেক্টর, জনাব শরিফুল ইসলাম বলেন, “একটি গুণমান সম্পন্ন ব্র্যান্ড তার পণ্য ও পরিষেবা এবং স্পর্শনীয় ও অস্পর্শনীয় উভয় দৃষ্টিকোণ থেকে একটি নির্দিষ্ট সময়ের ভিত্তিতে বিশ্বাস গড়ে তুলে, যে বিশ্বাস অবিচ্ছিন্ন সময়কালে নির্মিত হয় – যা একটি সুপারব্র্যান্ড করে।''

সুপারব্র্যান্ডস হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ফারজানা চৌধুরী বলেন, “সুপারব্র্যান্ডস হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া সত্যিই একটি গর্বের মুহূর্ত। আমি আমাদের সকল কর্মী ও অংশীদারদের গ্রাহকদের জন্য নতুন পণ্য ও পরিসেবা উদ্ভাবন ও উন্নয়নে নিরলস প্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ জানাই। ঝুঁকি সুরক্ষায় আমাদের উপর আস্থা রাখায় আমাদের গ্রাহকদের প্রতিও আমরা কৃতজ্ঞ।''

সুপারব্র্যান্ডস একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নির্বাচিত হয় যা বিভিন্ন স্বতন্ত্র ব্যাকগ্রাউন্ড এবং স্বেচ্ছাসেবী বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত, যা “ব্র্যান্ড কাউন্সিল” হিসেবে পরিচিত। বাংলাদেশের ২০২০-২০২১ সালের সুপারব্র্যান্ডগুলি বিশিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি ব্র্যান্ড কাউন্সিল দ্বারা নির্বাচিত হয়েছে।

২০২০-২০২১ বর্ষের বাংলাদেশের সুপারব্র্যান্ডস প্রাপ্ত ব্র্যান্ডগুলো হচ্ছেঃ

১ আমরা কোম্পানিস
২. একেএস
৩. এসিআই পিওর সল্ট
৪. বসুন্ধরা ডায়াপ্যান্ট
৫. বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেড
৬. বসুন্ধরা পেপার
৭. বসুন্ধরা টিস্যু
৮. বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিকালস লিমিটেড।
৯. ব্র্যাক ২
১০. বিআরবি ক্যাবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।
১১. চ্যানেল আই
১২. কাউ ব্র্যান্ড কালার কোটেড স্টিল
১৩. দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেড।
১৪. ডিবিএল গ্রুপ
১৫. এলিট পেইন্ট
১৬. এপিলিওন গ্রুপ
১৭. ফগ
১৮. ফ্রেশ রিফাইন্ড সুগার
১৯. রহিমাফরোজ গ্লোবাট ব্যাটারিস
২০. গ্রামীণফোন লিমিটেড
২১. গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড
২২. ইগলু আইস্ক্রিম
২৩. আইপিডিসি ফাইনান্স লিমিটেড
২৪. ম্যাটডোর গ্রুপ
২৫. মেটলাইফ
২৬. মন্নো সিরামিক
২৭. প্রাইড লিমিটেড
২৮. রেডিও ফুর্তি
২৯. রানার মোটরসাইকেলস
৩০. রুপচাঁদা
৩১. শাহ্ সিমেন্ট
৩২. শান্তা হোল্ডিংস লিমিটেড
৩৩. স্বপ্ন
৩৪. সিঙ্গার বাংলাদেশ
৩৫. এসএমসি কনডমস
৩৬. সুপার বোর্ড
৩৭. সুপার ফ্রেশ ড্রিংকিং ওয়াটার
৩৮. ডেইলি স্টার
৩৯. দি প্যালেস লাক্সারি রিসোর্ট
৪০. ওয়ালটন।

*বর্ণানুক্রমে

মানবকণ্ঠ/এইচকে






ads