৬ শতাধিক ব্যাংকার আক্রান্ত, মৃত্যু ২৮

- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৭ জুন ২০২০, ১৯:৫৯,  আপডেট: ২৭ জুন ২০২০, ২০:১৩

দেশে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আক্রান্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হচ্ছে পুলিশ, সাংবাদিক, স্বাস্থ্যকর্মী এবং বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষসহ ব্যাংকিং খাতের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও। এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে ছয় শতাধিক ব্যাংকার আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ২৮ জন। এছাড়া উপসর্গ দেখা দিয়েছে সহস্রাধিক ব্যাংক কর্মকর্তার।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন,  নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে ব্যাংক কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে অনেক সময় স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মানা হচ্ছে না। সচেতনতার অভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার সম্ভব হচ্ছে না। এসব কারণে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। তাই দ্রুত কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি। পাশাপাশি সমাগম ঠেকাতে অনলাইন ব্যাংকিংয়ে জোর দেয়া উচিত।

শনিবার (২৭ জুন) পর্যন্ত ব্যাংকার আক্রান্তের সংখ্যা ছয় শতাধিক ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ২৮ জনের। তাদের মধ্যে সোনালী ব্যাংকের ৮ জন, রূপালী ব্যাংকের ২ জন, দি সিটি ব্যাংকের ৩ জন, এনসিসি ব্যাংকের চট্টগ্রাম আগ্রাবাদ শাখার ১ জন, উত্তরা ব্যাংকের শান্তিনগর শাখার ১ জন, জনতা ব্যাংকের ৩ জন, ন্যাশনাল ব্যাংকের ১ জন, অগ্রণী ব্যাংকের ৩ জন, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ২ জন, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের ১ জন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ২ জন এবং এক্সিম ব্যাংকের ১ জন।

এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দেশের অন্যতম শিল্পপতি এস আলম গ্রুপ ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের পরিচালক মোরশেদ আলম ও মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেলিম।

করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে। শুধু রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকেই প্রায় ৩০০ কর্মকর্তার শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া উপসর্গ নিয়ে ছুটিতে গেছেন পাঁচ শতাধিক কর্মকর্তা। এরই মধ্যে মারা গেছেন ১৬ জন।

করোনার সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ব সোনালী ব্যাংক। এ ব্যাংকটিতে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যাও বেশি। এখন পর্যন্ত সোনালী ব্যাংকের প্রায় ১৫০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৮ জন কর্মকর্তা মারা গেছেন। অন্তত ২০০ জনের শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় ছুটিতে আছেন।

এছাড়া বেসরকরি ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেযে বেশি আক্রান্ত ইসলামী ব্যাংকে ১০০ জন। মৃত্যুর সংখ্যা বেশি সিটি ব্যাংকে তিনজন। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকেও শতাধিক কর্মকর্তা ভাইরাসে আক্রান্ত। মারা গেছেন দুইজন।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৬৯৫ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫০৪ জন।

মানবকণ্ঠ/এসকে




Loading...
ads






Loading...