মাহমুদুল্লাহর ভালোবাসায় সিক্ত মোস্তাফিজ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:০৫,  আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৪২

ফার্স্ট বোলারদের ফিরতি ক্যাচ মানেই দারুণ কিছু। বল ছোড়ার পর মুহূ্র্তেই ব্যাটসম্যানের ব্যাট ছুঁয়ে বল চলে আসে চোখের সামনে। প্রায় ন্যানো সেকেন্ডে চলে আসা বলের ক্যাচ নিতে বোলারদের খুব কমই সফল হতে দেখা যায়। তবে সফল হওয়া ক্যাচগুলো আলাদা নজর কাড়ে ক্রিকেট প্রেমিদের। রিফ্লেক্ট ক্যাচ বলে কথা।

মোস্তাফিজুর রহমানের ফিল্ডিং বরাবরই আঁটসাঁট। গ্রাউন্ড ফিল্ডিংয়ে খুব একটা সুনাম নেই। অনেক পেসারের মতো দৌড়-ঝাঁপ দিতে পারেন না। তবে নাগালের ক্যাচে চেষ্টা করেন। সেই চেষ্টায় সফলও হলেন, নিলেন চোখ ধাঁধানো ক্যাচ নিজের বোলিংয়েই। এরপরই সবার আগে দৌঁড়ে আসেন টাইগার দলপতি মাহমুদুল্লাহ। ভালোবাসায় সিক্ত করেন অনুজ এই কার্টার মাস্টারকে।

নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান ম্যাককনচি তার কাটারে আগেই ব্যাট চালায়। টাইমিংয়ে গড়বড় করে ফিরতি ক্যাচ দেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। বল চলে যায় মোস্তাফিজের নাগালে। বোলিংয়ের ফলো থ্রুতে বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে একহাতে বল তালুবন্দি করেন। মুহূর্তেই উৎসব বাংলাদেশ শিবিরে।

দুর্দান্ত বোলিং ও ক্যাচে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং অর্ডার গুঁড়িয়ে দিয়েছেন এই কার্টার মাস্টার। ৩.৩ ওভারে ১২ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। সব মিলিয়ে তার ইনিংসে ছিল ১৩ ডট বল।

মোস্তাফিজের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বোলিং করা নাসুম আহমেদেরও শিকার ৪ উইকেট। ৪ ওভারে ২ মেডেনে ১০ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। ৯৩ রানে গুটিয়ে বাংলাদেশকে সিরিজ জয়ের বড় সুযোগ করে দিয়েছেন বোলাররা। এবার ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব সামলানোর পালা।

মানবকণ্ঠ/এমএইচ



poisha bazar

ads
ads