বাংলাদেশের শততম টি-টোয়েন্টি, টার্গেট ১৫৩


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২২ জুলাই ২০২১, ১৯:০৪

হারারেতে বাংলাদেশের শততম টি-টোয়েন্টিতে বোলারদের তোপে ১৯ ওভারে ১৫২ রানে অলআউট হয়ে গেছে জিম্বাবুয়ে। এবার ব্যাটসম্যানদের প্রমাণের পালা।

মোস্তাফিজুর রহমান-শরিফুল ইসলামদের তোপে স্বাগতিকদের সর্বোচ্চ ৪৩ রান রেগিস চাকাভার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫ রান ডিয়ন মায়ার্সের।

আর বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেওয়া মোস্তাফিজ হলেন সবচেয়ে সফল বোলার। প্রথম উইকেটের পর শেষটাও মুড়ে দিয়েছেন বাঁহাতি পেসার। ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে তার শিকার ৩ উইকেট। আলো ছড়িয়েছেন আরেক বাঁহাতি শরিফুলও। ৩ ওভারে ১২ রান খরচায় তার শিকার ২ উইকেট। ‍মিতব্যয়ী ছিলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও। নতুন বল হাতে তুলে নেওয়া ডানহাতি পেসার ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। সাকিব আল হাসান ও সৌম্য সরকার নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

হারারেতে রেগিস চাকাভার বিদায়ের পর পাল্টে যায় দৃশ্যপট। দ্রুত ৪ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশের বোলাররা ঘুরে দাঁড়িয়ে চেপে ধরে স্বাগতিকদের। চাকাভার ব্যাটে যদিও রানে গতি পেয়েছিল তবে এই উইকেটকিপারের বিদায়ের পর ভেঙে পড়ে প্রতিরোধ। তার আউট হওয়ার ৪ বল পর শূন্য হাতে ফিরে যান অধিনায়ক সিকান্দার রাজা। অর্থাৎ, এক ওভারে ২ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। এরপর সৌম্য সরকারের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে মাত্র ৬ রান করে তারিসাই মুসাকান্দা ফিরে গেলে বিপদ বাড়ে।

যদিও একপ্রান্তে আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে আশা জাগিয়ে যাচ্ছিলেন ডিয়ন মায়ার্স। কিন্তু তিনিও টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। শরিফুল ইসলামের দ্বিতীয় শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। বাঁহাতি পেসারের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে ২২ বলে ২ বাউন্ডারিতে করেন ৩৫ রান।

মানবকণ্ঠ/এনএস


poisha bazar

ads
ads