• বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
  • ই-পেপার

চলছে গম্ভীর-আফ্রিদি লড়াই


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৯ জুলাই ২০২০, ১৮:২৬

ঘটনা ২০০৭ সালের। কানপুরে ভারত-পাকিস্তানের ওয়ানডে ম্যাচে মাঠেই বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন ভারতের গৌতম গম্ভীর ও পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি। দুজনেই ক্রিকেট ময়দানে এখন সাবেক, তবে ১৩ বছর আগে শুরু হওয়া সেই লড়াই এখনো চলছে তাদের মধ্যে।

কেউ কারো ছায়া তো মাড়ান-ই না, উল্টো সময়ে-অসময়ে কথার যুদ্ধ চলে দুজনের মধ্যে। এই তো কিছুদিন আগে আফ্রিদি তার আত্মজীবনীতে গম্ভীরের আচরণগত সমস্যার বিষয়টি তুলে এনেছিলেন। জবাবে তাকে মানসিক ডাক্তার দেখানোর পরামর্শ দেন গম্ভীর। সেই বিষয় নিয়ে দুই পক্ষ ঠাণ্ডা না হতেই আবার আফ্রিদির ‘খোঁচা’।

কৌশলে সাবেক এই অলরাউন্ডার জানান, তিনি সবসময়ই গৌতম গম্ভীরের ব্যাটিং পছন্দ করতেন। তবে এরপর তিনি যা বললেন, তাতে ভারতের সাবেক ওপেনারের রাগ বেড়ে যাওয়ারই কথা।

পাকিস্তানি সাংবাদিক জয়নব আব্বাসের সঙ্গে এক সাক্ষাত্কারে আফ্রিদি বলেন, ‘একজন ক্রিকেটার, একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে আমি তাকে (গম্ভীর) সবসময়ই পছন্দ করি। কিন্তু মানুষ হিসেবে, সে মাঝেমধ্যে কিছু কথা বলে, কিছু আচরণ দেখায়; যা দেখার পর মনে হবে, আসলে কি বলব- তার কিছু সমস্যা আছে। তার ফিজিও ইতোমধ্যে সে বিষয়টি নিয়ে বলেছেও।’

আফ্রিদি মূলত ভারতীয় দলের সাবেক ফিজিও প্যাডি আপটনের লেখা এক বইয়ের মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই এমন কথা তুলেছেন। ২০০৯ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ভারতীয় দলে মেন্টাল কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করেছেন আপটন। তিনি গম্ভীরকে সবচেয়ে দুর্বল এবং আত্মবিশ্বাসহীন মানসিকতার খেলোয়াড় বলেছেন। আউট হওয়ার পর, এমনকি সেঞ্চুরি করে ফিরলেও সবচেয়ে বেশি ভেঙে পড়তেন গম্ভীর।

কিছুদিন আগে, আপটনের এমন মন্তব্যের জবাবে গম্ভীর বলেন, ‘আমি সবসময়ই নিজেকে এবং ভারতীয় দলকে বিশ্বের সেরা হিসেবে দেখতে চেয়েছি। এজন্য ১০০ করার পরও সন্তুষ্ট থাকিনি। প্যাডি তার বইয়ে সে কথাই লিখেছে। আমি এখানে খারাপ কিছু তো দেখছি না।’

মানবকণ্ঠ/এফএইচ





ads







Loading...