ইতিহাসের পাতায় ‘তৌহিদ ঝড়’

মানবকণ্ঠ
ছবি - সংগৃহীত।

poisha bazar

  • মানবকণ্ঠ ডেস্ক
  • ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৩৬

ইতিহাস গড়লেন উদীয়মান ক্রিকেট তারকা তৌহিদ হৃদয়। অনূর্ধ্ব-১৯ দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে টানা ৩ ম্যাচে সেঞ্চুরির বিশ্বরেকর্ড গড়লেন বাংলাদেশি এ ক্রিকেটার। গতকাল শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক সেঞ্চুরি তুলে নেন তৌহিদ। সেই সুবাদে বাংলাদেশ জেতে ম্যাচ, সেই সঙ্গে সিরিজও ৪-০ ব্যবধানে নিজেদের করে নেয় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটের ওয়ানডেতে আগে টানা ২টি করে সেঞ্চুরির রেকর্ড থাকলেও টানা ৩টি শতরানের ইনিংস ছিল না কারো। অতীতে ইংল্যান্ডের স্যার অ্যালিস্টার কুক, অস্ট্রেলিয়ার প্রয়াত ব্যাটসম্যান ফিলিপ হিউজ, ভারতের উন্মুক্ত চাঁদ, গৌরব ধিমান ও শুভমন গিল, সাউথ আফ্রিকার এইডেন মার্করাম, জোনাথন বার্ড, বাংলাদেশের মাহমুদুল হাসান জয়, পাকিস্তানের সামি আসলাম ও শ্রীলঙ্কার আভিষ্কা ফার্নান্দোর ছিল টানা দুই সেঞ্চুরির রেকর্ড।

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের পাঁচ ম্যাচের সিরিজে প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছিল। পরের ম্যাচে খুলনায় ৮২ রানে অপরাজিত ছিলেন তৌহিদ। তৃতীয় ম্যাচে খেলেন ১২৩ রানের আরেকটি হার না মানা ইনিংস। চতুর্থ ম্যাচে ১১৫ রানের পর চট্টগ্রামে কাল তার উইলো থেকে আসলো ১১১ রানের ইনিংস। সেই ইনিংসের কল্যাণে লঙ্কানদের বিপক্ষে ৫০ রানের জয় পায় বাংলাদেশ। প্রথমে ব্যাট করে তৌহিদের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ২৮৩ রান তুলে বাংলাদেশ। জবাবে ৩২ বল আগেই ২৩৩ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা।
এদিকে টানা তিন সেঞ্চুরিতে ইতিহাসের পাতায় রীতিমতো ঝড় তুলে ভেঙে-চুরে সব একাকার করে দিয়েছেন তৌহিদ হৃদয়।

এর আগে ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও জ্যাক বার্নহাম তিন সেঞ্চুরি পেলেও তাদের সেঞ্চুরিগুলো ছিল বিশ্বকাপে। এ ছাড়াও ২০০৫ আফ্রো-এশিয়া কাপে তিন সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন গৌরব ধিমান। গতকালের সেঞ্চুরি দিয়ে যুব ক্রিকেটে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে এক বর্ষপুঞ্জিতে চার সেঞ্চুরির রেকর্ডও গড়েন তৌহিদ। ২০১২ সালে চারটি করে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন কুইন্টন ডি কক ও উন্মুক্ত চাঁদ। এ ছাড়াও ৪৩১ রান নিয়ে ৫ ম্যাচের দ্বিপাক্ষিক সিরিজে এখন সবচেয়ে বেশি রান তৌহিদের। ৪ ম্যাচের সিরিজে ৪২৪ রান আছে ক্রিস গেইলের।

সবমিলিয়ে যে কোনো সিরিজে সবচেয়ে বেশি ব্যক্তিগত রান অবশ্য শিখর ধাওয়ানের। ২০০৪ বিশ্বকাপে ৭ ইনিংসে ৫০৫ রান করেছিলেন ভারত ওপেনার। তৌহিদই প্রথম ব্যাটসম্যান যিনি যুব পর্যায়ে এক বছরে ১০০০ রান তুললেন। চলতি বছরে তার রান হলো ১০০১। মাত্র ৪০ ইনিংসে ১৫০০’র বেশি রান পাওয়া তৃতীয় এখন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এর আগে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক নাজমুল হাসান শান্ত (১৮২০) ও পাকিস্তানের সামি আসলামের (১৬৯৫) ছিল এই কীর্তি।

মানবকণ্ঠ/এইচকে  




Loading...
ads





Loading...