বৃষ্টি বাড়াল পাকিস্তানের অপেক্ষা

মানবকণ্ঠ
বৃষ্টি বাড়াল পাকিস্তানের অপেক্ষা - ছবি: সংগৃহীত।

poisha bazar

  • মানবকণ্ঠ ডেস্ক
  • ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:৪০

এক দশক পরে ঘরের মাঠে কোনো বড় দলের সাথে ওয়ানডে ম্যাচ খেলার সুযোগ এসেছে পাকিস্তানের সামনে। তবে এই অপেক্ষা আরেকটু বাড়িয়ে দিল বৃষ্টি। করাচি স্টেডিয়ামে বৃষ্টিতে পণ্ড হয়েছে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ।

গতকালের এই ম্যাচ দিয়ে ২০০৯ সালের সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথমবার ক্রিকেটের বড় প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ঘরের মাঠে নামার অপেক্ষায় ছিল পাকিস্তান। লাহোরে সেই হামলাও হয়েছিল পাকিস্তানে ক্রিকেট ফিরিয়ে দেয়া শ্রীলঙ্কা দলের ওপর।

করাচির ম্যাচ শুরু হওয়ার কথা ছিল স্থানীয় সময় বিকেল ৩টায়। কিন্তু প্রচণ্ড বৃষ্টিতে সাড়ে ৪টায় খেলা পরিত্যক্তের ঘোষণা আসে। তাতে দেশের মাটিতে ক্রিকেট উপভোগ করতে অধীর অপেক্ষায় থাকা দর্শকদের হতাশ হয়ে বাড়ি ফিরতে হয়েছে। বৃষ্টি পাকিস্তানের ক্রিকেট ভক্তদের অপেক্ষা আরেকটু বাড়িয়ে দিল।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর প্রথমবার মাঠে নামতে যাচ্ছিল পাকিস্তান। নতুন প্রধান কোচ মিসবাহ-উল-হকের প্রথম মিশন ছিল শুক্রবারের ম্যাচটি। কিন্তু করাচি জাতীয় স্টেডিয়ামের ম্যাচে টস করাই সম্ভব হয়নি। সকাল থেকেই ছিল বৃষ্টি, আবহাওয়ার উন্নতি না হওয়া ম্যাচ সূচির দেড় ঘণ্টা পর পরিত্যক্ত হয়ে যায় প্রথম ওয়ানডে। এ নিয়ে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কার টানা দ্বিতীয় ওয়ানডে বৃষ্টিতে ভেসে গেল। ইংল্যান্ড ও ওয়েলস বিশ্বকাপেও দল দুটির ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল। পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ম্যাচ হয়েছে। বিশ্ব একাদশের ম্যাচ দিয়ে সুযোগ হয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ নেয়ার। জিম্বাবুয়ে দলও সফর করেছে পাকিস্তান। এরপরও ঘরের মাঠে বড় দলের বিপক্ষে লড়াই দেখার আক্ষেপ থেকেই গেছে পাকিস্তানিদের। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে সেটা ঘোচানোর সুযোগ পেয়েছে তারা। কিন্তু পাকিস্তানের ক্রিকেট উত্তেজনার আগুনে জল ঢেলে দিয়েছে বৃষ্টি!

করাচির এই স্টেডিয়ামে প্রথমবার কোনো ওয়ানডে পরিত্যক্ত হলো। এই মাঠে রোববার পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি হওয়ার কথা থাকলেও সূচি একদিন পিছিয়ে সোমবার করা হয়েছে। যাতে করে মাঠকর্মীরা একদিন সময় বেশি পান মাঠ ঠিক করার। পিসিবি ডিরেক্টর বলেন, ‘ভারি বৃষ্টির জন্য আমাদের সূচি পরিবর্তন করতে হচ্ছে। আমরা শ্রীলঙ্কার কাছে কৃতজ্ঞ কেননা তারা আমাদের দেশে ক্রিকেট ফিরিয়ে দিয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘যারা ১ম ওয়ানডের জন্য ক্রিকেট কিনেছে তারা পরবর্তী যে কোনো একটি ম্যাচ সেই টিকিটেই দেখতে পারবে। আর যারা আসতে পারবে না তাদের টাকা ফেরত দেয়া হবে।’

বৃষ্টির কারণে ১ম ম্যাচ ভেসে যাওয়ায় এখন সামনের ম্যাচের অপেক্ষায় পাকিস্তানি ক্রিকেট ভক্তরা। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেটিও হবে করাচির এই ভেন্যুতে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads




Loading...