দিনাজপুরে নিজের ২ সন্তানকে হত্যা করল বাবা


  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৫ নভেম্বর ২০২২, ১৭:৪৭,  আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০২২, ১৮:০০

দিনাজপুর বিরলের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যক্ত রুম থেকে আপন দুই সহোদরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সহোদর বড় ভাই ইমন হাসান (৭) ও ছোট ভাই ইমরান হাসান (৩) বিরল পৌরসভা এলাকার শংকরপুর ঘোড়া পীর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে।

আজ শুক্রবার সকাল দশটার দিকে বিরলের বিজোড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় একটি পরিত্যক্ত পক্ষ থেকে আপন সহোদর ভাইয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়।

লাশ দুটি উদ্ধারের সংবাদ নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলাম উদ্দিন।

নিহতদের দাদা রফিকুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শরিফুল ইসলাম আমার দুই নাতিকে সঙ্গে নিয়ে বিরলের বাজারে শীতের কাপড় কিনে দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। গভীর রাত পর্যন্ত তারা বাড়িতে না আসায় আমরা বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজন ও নিকটস্থ জায়গায় অনেক খোঁজাখুঁজি করি কিন্তু কোথাও তাদের সন্ধান পাই নাই। আজ সকাল ১০টার দিকে ভবানীপুর প্রাথমিক স্কুলের পাশ থেকে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে জানতে পারি দুটি শিশুর লাশ পড়ে আছে। ঘটনাস্থলে এসে শনাক্ত করি এই দুই শিশু আমার কলিজার টুকরা দুই নাতি। আগ থেকেই আমার ছেলে এই দুই শিশুকে মেরে ফেলে নিজেও বিষ খাবে এমন হুমকি দিয়ে আসছিল। তারই বাস্তবায়ন ঘটিয়েছে আজ।

দিনাজপুর পৌর মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর বলেন, গত একমাস আগেই শরিফুল ও তার স্ত্রী উম্মে কুলসুম এর মধ্যে তালাক হয়। এই তালাকের জের ধরেই শিশু দুটির বাবা শরিফুল ইসলাম নিজ হাতে তুই শিশুকে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে। ঘাতক পিতা পলাতক রয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলামউদ্দিন বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে বাবা শরিফুল ইসলাম খাবারের সঙ্গে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মরগে প্রেরণ করেছে। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

মানবকণ্ঠ/এমআই


poisha bazar