• বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • ই-পেপার

দিনাজপুরে যুবককে পিটিয়ে জখম, গ্রেপ্তার ২


  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:৫৯

দিনাজপুর সদরের কসবায় মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে মো. সবুজ (৪০)-কে ফাঁকা দোকান ঘরের খুঁটির সঙ্গে হাত-পা বেঁধে লোহার রড, লাঠি, বৈদ্যুতিক তার ও লোহার হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে তার মোবাইলে ভিডিও করে ফেসবুকসহ ইউটিউবে ভাইরাল করার মামলায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কোতোয়ালি থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত গোলাম মাওলা শাহ দুইজনকে আটকের সংবাদ নিশ্চিত করেন বলেন, আটককৃত দুই ব্যক্তিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আটকৃতরা হল, দিনাজপুর পৌর এলাকার খামার ঝাড়বাড়ী কসবা গ্রামের আব্দুল ওয়াহেদের ছেলে  মুজিবুর রহমান (৪৫)। একই গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে শাহজাহান আলম (৩৬)।

ভিকটিম মোহাম্মদ সবুজের মামি লাকি বেগম বাদী কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন, তিনি লিখিত এজাহারে উল্লেখ করেন তার ভাগিনা সবুজকে পুলহাট ট্রাক দালাল অফিস হইতে ফুসলাইয়া ট্রাক্টর চালক সবুজকে একই এলাকার মজিবর রহমান, জুয়েল, শাহজাহানসহ আরও অজ্ঞাত ৪/৫ ফুসলাইয়া গত মঙ্গলবার দিন গত রাতে কসবা আলমের মোড় বিবাদীর দোকান ঘরে আটকাইয়া লোহার রোড লাঠি বৈদ্যুতিক তার লোহার হাতুড়ি দিয়ে দুই হাত ও দুই পায়ের হাঁটুতে এলোপাথায় ভাবে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে। হাত মসকে ও থেতলানো জখম করে এই ঘটনাকে তারাই মোবাইলে ধারণ করে বিভিন্ন ফেসবুকে ভাইরাল করে।

ঘটনার পর আত্মীয়-স্বজন নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছলে গুরুতর আহত অবস্থায় সবুজকে ফেলে পালিয়ে যায় বিবাদীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় গুরুতর আহত সবুজকে উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সবুজ বলেন, মোবাইল চুরির অপরাধে এক ব্যক্তিকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য তারা নির্দেশ দিলে আমি সেই মোবাইল চোরকে ধরতে ব্যর্থ হইলে তারা আমাকে ওই মোবাইল চোর ধরতে না পারার অপরাধে দোকান ঘরের খুঁটির সঙ্গে উল্টো মুরো দিয়ে বেঁধে বেদম ভাবে আমাকে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করেছে।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ তানভীরুল ইসলাম বলেন, উক্ত ঘটনায় খবর পাওয়ার তাৎক্ষণিকভাবেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে। আরও আসামিদেরকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ ও অভিযান চালাচ্ছে। এইভাবে অসহায় যুবকটিকে যারা পিটিয়ে আহত করেছে তাদেরকে খুঁজে বের করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

মানবকণ্ঠ/এমআই


poisha bazar