নাঙ্গলকোটে চুল বড় রাখায় ছাত্রকে পিটিয়ে জখম


  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২২ জুন ২০২২, ২১:৫৫

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে মাথার চুল বড় রাখার দায়ে তুলাতুলী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণী পড়ুয়া মো. ইকবাল হোসেন রাকিব নামে এক শিক্ষার্থীকে বেড়ধক পিটিয়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ওই বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী আক্কাসের বিরুদ্ধে। বুধবার ওই স্কুলের দশম শ্রেণী কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। ইকবাল তুলাতুরী গ্রামের রফিকের ছেলে।

জানা যায়, ওইদিন সকালে দশম শ্রেণি কক্ষে শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীদের ইংরেজি ক্লাস নিচ্ছেন সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী আক্কাস। হঠাৎ রাকিবের মাথার চুল চেপে ধরে টানা-হেঁচড়া করে ওই শিক্ষক। একপর্যায় শিক্ষক আলী আক্কাস বলে তোর মাথার চুল এত বড় কেন? তখন ছাত্র রাকিব বলেন স্যার আমার চুলের চেয়ে অনেকের চুল আরো বড় আছে। সে হিসেবে আমার চুল ছোট রয়েছে। এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষক আলী আক্কাস ক্ষিপ্ত হয়ে হাতের বেত দিয়ে এলোপাতাড়ি বেড়ধক পিটিয়ে জখম করে এবং রাকিবকে চড় থাপ্পড় দিয়ে টেনে হিঁচড়ে স্কুল থেকে বের করে দেয়।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী মো. ইকবাল হোসেন রাকিব বলেন, আলী আক্কাস স্যার ক্লাস রুমে প্রবেশ করে হঠাৎ আমার মাথার চুল জোর করে চেপে ধরে বলে তোর চুল এত বড় কেন? আমি বলছি স্যার আমার চুল তো ছোট আমার থেকে অনেক ছাত্রের চুল বড় আছে এ কথা বলার পর স্যার আমাকে বেড়ধক পিটিয়ে চড় থাপ্পড় মারতে মারতে টেনে হিঁচড়ে স্কুল থেকে বের করে দেন। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী আক্কাস বলেন, আপনাদের কাছে এভিডেন্স থাকলে যা পারেন তা লিখেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নাছির উদ্দীন বলেন, খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রায়হান মেহেবুবের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমি মিটিংয়ে আছি, পরে ফোন দেন।

মানবকণ্ঠ/এমআই


poisha bazar