নাগরপুরে আ’লীগের দু’গ্রুপে গোলাগুলিতে নিহত ১


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৬ নভেম্বর ২০২১, ২২:৪০

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে হামলা ও গুলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে একই পরিবারের আরো দুইজন। আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করা হয়।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের রেহাই পাইকাল গ্রামে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

নিহতের নাম তোতা শেখ (৪০)। তিনি উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের রেহাই পাইকাইল গ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আক্কেল মেম্বারের ছেলে। এছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে তারই ছোট ভাই ও বোন জামাই।

মেম্বার আক্কেল আলী গোলাগুলিতে হতাহতের খবর নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের ভাই গুলিবিদ্ধ আহত রফিক শেখ বলেন, আমরা পারিবারিকভাবে আওয়ামী লীগের সমর্থক। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল হাসেমের পক্ষে কাজ করছিলাম। হঠাৎ আমাদের গ্রামের দপ্তিয়র ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুদ্দীন আমাদের বিরুদ্ধে নির্বাচনে কাজ না করার অভিযোগ আনে। শুক্রবার বিকেলে আমরা পাইকেল বটতলা মোড়ে চা খাচ্ছিলাম। এ সময় আমাদের সাথে ছাত্রলীগের ওই সাবেক সভাপতির সাথে কথা কাটাকাটি হয়। পড়ে সন্ধ্যায় সাইফুদ্দীন, সুমন, খাজা ও জাহাঙ্গীর অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

এ সময় প্রতিপক্ষ আমাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে আমার পায়ে গুলি লাগে। মুহূর্তের মধ্যে গোটা এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় আমার ভাই তোতা শেখ, বোন জামাই বাচ্চু মণ্ডল ও আমাকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে দৌলতপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে আমার ভাই তোতা শেখ মারা যান।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে সঠিক তদন্ত পূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।


poisha bazar