শ্বশুরবাড়িতে সিঁধ কাটল ক্ষুব্ধ জামাই

- সংগৃহীত

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৫৮,  আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:১০

ছয় মাস আগে বিয়ে করেন চুরিকেই পেশা হিসেবে বেছে নেয়া রিজ্জাকুল মণ্ডল। কিন্তু বিয়ে বেশিদিন টিকলোনা। চুরি ছাড়তে না পারায় তালাক দেন স্ত্রী। এতে ক্ষুব্ধ হলেন চোর জামাই। ফলস্বরুপ ৮ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে শ্বশুরবাড়িতেই সিঁধ কেটে চুরি করলেন রিজ্জাকুল।

ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার কিচক ইউনিয়নের চল্লিশছত্র গ্রামে।

পরে চুরি যাওয়া পণ্য- একটি এলইডি টিভি ও একটি ফ্যানসহ রিজ্জাকুল মণ্ডলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শুক্রবার বিকেলে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রিজ্জাকুল জানান, প্রায় ছয় মাস আগে একই গ্রামের মনজু মিয়ার মেয়েকে বিয়ে করেন তিনি। শ্বশুরের কাছে জামাইয়ের বিরুদ্ধে হরহামেশা লোকজন চুরির নালিশ করতেন। একপর্যায়ে বিরক্ত হয়ে তিনি মেয়েকে ছাড়িয়ে নেন। এতেই শ্বশুরের ওপর ক্ষুব্ধ হয় রিজ্জাকুল। তারপর শ্বশুরের বাড়িতে চুরির পরিকল্পনা করে সে।

৮ সেপ্টেম্বর চুরির ঘটনার পরদিন শিবগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দেন শ্বশুর মনজু মিয়া।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, রিজ্জাকুল মণ্ডলকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চুরি যাওয়া টিভি ও ফ্যান উদ্ধার করে শ্বশুরকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এমএম


poisha bazar

ads
ads