নাটোরে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর আটক


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৫ জুন ২০২১, ১০:০২

নাটোরের গুরুদাসপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত কিশোর মেহেদী হাসান (১৫) কে আটক করেছে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ।

এঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বিকালে থানায় অভিযোগ দিলে রাতেই মেহেদী হাসানকে আটক করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের দক্ষিণ সাহাপুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। মেহেদী হাসান পাশ্ববর্তী বামনকোলা গ্রামের রবিউল করিমের ছেলে।

গত এক বছর ধরে মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মেহেদীর। ওইদিন রাতে মেয়েটিকে বিয়ের কথা বলে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এসময় ওই স্কুলছাত্রীর ডাকচিৎকারে অভিযুক্ত মেহেদী হাসান দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার মেয়েটি তার আত্মীয় স্বজনকে ঘটনাটি জানায়।

মেয়ের স্বজনরা ছেলেটির অভিভাবকদের জানালে স্থানীয় ভাবে বিয়ের কথা বলে মিমাংসার আশ্বাস দেন। বৃহস্পতিবার বিকালে মেয়েটির মা থানায় অভিযোগ দিলে অভিযুক্ত মেহেদী হাসানকে পুলিশ আটক করে।

গুরুদাসপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মেয়েটির মার অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মানবকণ্ঠ/আরআই


poisha bazar

ads
ads