জামালপুরে যৌতুকের মামলায় স্বামীর কারাদণ্ড


poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ০৪ মার্চ ২০২১, ১৯:০৫

যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার মামলায় স্বামীর দুই বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) দুপুরে জামালপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এম আলী আহমেদ এই রায় দেন। এ সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তির নাম সুলতান মাহমুদ জনি (৩৩)। তিনি জামালপুর শহরের ইকবালপুর গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে।

মামলার নথি ও আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১৪ সালের ১৪ এপ্রিল জনির সাথে মেলান্দহ উপজেলার চরপলিশা গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম স্বপনের কন্যা শারমিন আক্তার সন্ধ্যার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামীর পরিবারের লোকজন পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য সন্ধ্যাকে চাপ দিতেন। দরিদ্র পিতার যৌতুক দেওয়ার সামর্থ্য নেই জানালে গত বছরের ৯ অক্টোবর সন্ধ্যাকে মেরে বাড়ি থেকে বের করে দেন জনি।

পরদিন জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে তিনি ১৩ অক্টোবর জামালপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। সেই মামলার ৫ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এই রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী আকরাম হোসেন। বিবাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী আমানুল্লাহ আকাশ।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads
ads