নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার ধস, তদন্ত করবে মন্ত্রণালয়

- ছবি: সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৩ মার্চ ২০২১, ১১:৫২

সুনামগঞ্জের পাগলা জগন্নাথপুর সড়কের কুন্দানালা সেতুর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার আগেই সেতুর পাঁচটি গার্ডার ভেঙে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়টি তদন্ত করবে সড়ক ও সেতু মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (পরিকল্পনা) মো. জাকির হোসেনকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সরেজমিন তদন্ত করে আগামী পাঁচ কর্ম দিবসের মধ্যে এই বিষয়ে রিপোর্ট প্রদানের জন্য কমিটিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) রাতে সেতু মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল মালেক গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে, সোমবার (১ মার্চ) দুপুরে সড়ক ও জনপথ বিভাগের ডিজাইন সেকশনের তিন সদস্যের তদন্ত দলের প্রধান অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী শিশির কুমার রাউত, তদন্ত দলের সদস্য তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শাহাদত হোসেন ও নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুর রহমান কাউচার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। আগামী ছয় দিনের মধ্যে এই রিপোর্ট জমা দেওয়ার কথা রয়েছে।

সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের ডাবর পয়েন্ট থেকে জগন্নাথপুর-আউশকান্দি হয়ে রাজধানীর দূরত্ব কমানোর জন্য সড়কের প্রশস্তকরণের কাজ হচ্ছে গত কয়েক বছর ধরে। এই সড়কে ৭টি নতুন সেতুর কাজ হচ্ছে। চলতি বছরের ডিসেম্বরে সেতুর কাজ শেষ হওয়ার কথা, কিন্তু গত রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ১০ কিলোমিটারের মাথায় কুন্দানালা খালের উপর নির্মিতব্য সেতুর ৫টি গার্ডার একে একে ধসে যায়। ৫০ মিটার দৈর্ঘ্যরে এই সেতুসহ প্রকল্পের ৭টি সেতু নির্মাণের কাজই বাস্তবায়ন করছে মেসার্স এমএ বিল্ডার্স।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ দাবি করেন, কাজে কোনো অনিয়ম হয়নি। ১৬০ টন ওজনের গার্ডার বসানোর সময় হাইড্রোলিক পাইপ ফেটে যাওয়ায় ওজন নিতে পারেনি, একটার ওপর আরেকটা পড়ে সব কয়টি ভেঙে গেছে।

কিন্তু স্থানীয় লোকজন দাবি করেছেন, এই সড়কে নির্মিতব্য ৭টি সেতুতেই অনিয়ম হচ্ছে। অনিয়মের কারণেই এই ধসের ঘটনা ঘটেছে। এই সেতুগুলোর নির্মাণ কাজ সঠিক হচ্ছে কিনা, ডিজাইন ঠিক হয়েছে কিনা- এসব বিষয় বিশেষজ্ঞ প্রকৌশলীদের দিয়ে তদন্ত করার দাবিও জানান তারা।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের সংশ্লিষ্টরা জানান, হাইড্রোলিক জ্যাক বিকল হয়ে সেতুর গার্ডার ভেঙে পড়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। এর আগেও এই সড়কের ছয়হারা সেতু ও সুনামগঞ্জ সিলেট সড়কের গোবিন্দগঞ্জে সুরমা নদীতে স্থাপিত সেতুর গার্ডার ভেঙে পড়েছিল।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, 'পিসি গার্ডারগুলো হাইড্রোলিক জ্যাকের মাধ্যমে স্থাপন করতে হয়। কোন কারণে বসাতে গিয়ে হাইড্রোলিক জ্যাক ফেইল করলে সবগুলোই ভেঙে পড়ে। এই সেতুর ক্ষেত্রেও এটা হয়েছে। তাই নতুন করে আবারো গার্ডার নিয়ে এসে বসাতে হবে। তবে এ কারণে সরকারের আর্থিক কোন ক্ষতি হবে না। নিয়মানুযায়ী নির্মাণাধীন কাজে এমন দুর্ঘটনা ঘটলে ঠিকাদারকেই পুনরায় কাজ করতে হয়।'

মানবকণ্ঠ/এমএ






ads
ads