মুজিববর্ষে চকরিয়া ও পেকুয়ায় ৮৯ গৃহহীন পরিবার পেলেন নতুন ঘর


poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:১৫,  আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:১০

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলার ক শ্রেণীর ৮৯ হতদরিদ্র গৃহহীন পরিবার পেলেন মাথা গুজার ঠাই নতুন ঘর ও জমি। তাদের মধ্যে চকরিয়া উপজেলায় ৮০জন এবং পেকুয়া উপজেলায় ৯ জন উপকারভোগী রয়েছেন।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ শামসুল তাবরীজের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. তানভীর হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত নতুন ঘর ও জমি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের এমপি ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম এমএ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, ভাইস চেয়ারম্যান মকছুদুল হক ছুট্টু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন হক জেসি চৌধুরী ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটুসহ প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ জাফর আলম বলেন, মুজিববর্ষে সারা দেশে একসঙ্গে ৭০ হাজার গৃহহীন পরিবারকে পাকা বাড়ি দিয়ে সারা বিশ্বের মাঝে অনন্য দৃষ্ঠান্ত স্থাপন করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যাদের কোন জমি ও বাড়ি ছিল না এমন পরিবারগুলো জমি ও সেমিপাকা ঘর পেয়ে বেঁচে থাকার জন্য নতুন করে স্বপ্ন দেখছে।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আজ রাষ্ট্র ক্ষমতায় রয়েছেন বলেই সারাদেশে প্রথম দফায় একসঙ্গে ৭০ হাজার হতদরিদ্র গৃহহীন পরিবার জমি ও নতুন ঘর পেয়ে পুনর্বাসিত হয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ মানবতা বিশ্বের গরীব-দুঃখী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় অনন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বলেন, ‘মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রথম দফায় সারাদেশে একযোগে ৭০ হাজার হতদরিদ্র গৃহহীন পরিবারকে নতুন বাড়ি হস্তান্তর করেন। তারই আলোকে চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়নের ভূমিহীন ২০০ পরিবারকে দেওয়া হচ্ছে জমি ও নতুন বাড়ি। তাদের মধ্যে ২০টি নৃতাত্বিক পরিবারও রয়েছেন। শনিবার প্রথম দফায় চকরিয়া উপজেলার ক শ্রেণীর ৮০টি হতদরিদ্র গৃহহীন পরিবারকে জমি ও নতুন বাড়ি হস্তান্তর করা হয়। অবশিষ্ঠ পরিবারগুলোকেও পর্যায়ক্রমে জমি ও নতুন বাড়ি হস্তান্তর করা হবে।

এদিকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে পেকুয়া উপজেলার হতদরিদ্র গৃহহীন ৯টি পরিবারকে জমি ও নতুন ঘর হস্তান্তর করেন উপজেলা প্রশাসন। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) উপজেলা পরিষদের হলরুমে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উপকারভোগীদের মাঝে এসব জমি ও ঘর হস্তান্তর করা হয়। পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মোতাচ্ছেম বিল্যাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জমি ও বাড়ি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পেকুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম। এসময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

পেকুয়া উপজেলা সূত্র জানায়, মুজিববর্ষ উপলক্ষে পেকুয়া উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের ৪৫ ভূমিহীন পরিবারকে দেয়া হবে জায়গাসহ নতুন বাড়ি। শনিবার প্রথম দফায় পেকুয়া উপজেলার ক শ্রেণীর ৯টি হতদরিদ্র গৃহহীন পরিবারকে জমি ও নতুন বাড়ি হস্তান্তর করা হয়। অবশিষ্ঠ পরিবারগুলোকেও পর্যায়ক্রমে জমি ও নতুন বাড়ি হস্তান্তর করা হবে। পৃথক অনুষ্ঠানে স্ব স্ব উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্থরের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।






ads
ads