ডকুমেন্টে ঘষাঘষি করে আদালতে মামলা, ফাঁসছেন বাদী

আদালত - প্রতীকী ছবি

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ২১:২৩,  আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৩৭

ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়া গ্রামের নজর আলী হাওলাদার মূল ডকুমেন্টপত্রে ঘষাঘষি করে জমির তফসিল পরিবর্তন করে ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৭১/১৬।

বৃহস্পতিবার আদালতের ধার্য তারিখে মামলার বিষয়টি বিবাদী পক্ষের আইনজীবী ডকুমেন্ট চ্যালেঞ্জ করলে বিচারক মো. শিহাবুল ইসলাম খারিজ করে দেন। সেই সাথে বাদীর বিরুদ্ধে ফৌজদারী কার্যবিধি আইনে ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেন।

বিবাদী পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোফাজ্জেল হোসেন ও অ্যাডভোকেট খান হাফিজুর রহমান বাবু বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট জহুরুল হক খোকন।

অ্যাডভোকেট খান হাফিজুর রহমান বাবু জানান, জনৈক মো. নজর আলী বাদী হয়ে ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়া মৌজার এসএ ২৩৮নং খতিয়ানের ১৫৬ নং দাগের বিএস ১৩২ নং খতিয়ানের ১৩২নং দাগের ৪শতাংশ সম্পত্তির মালিকানা দাবি করে রেকর্ড সংশোধনের জন্য ল্যান্ডসার্ভে ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলায় ৩৩জনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় স্বাক্ষীদের স্বাক্ষ্য গ্রহণ ও জেরার শেষে যুক্তিতর্কে পূর্বে ডকুমেন্টে ঘষাঘষি করে কারসাজি বিষয়টি বাদীকে জিজ্ঞাসা করলে বাদী শক্তভাবে ডকুমেন্ট সত্য বলে স্বীকার করেন। আদালতে বিবাদী পক্ষের দেয়া সহি মোহরকৃত ডকুমেন্ট ও বিচারকের সংগৃহিত ডকুমেন্ট যাচাই করলে জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়ে।

যুক্তিতর্কের শেষে আদেশের জন্য ধার্য তারিখে আদালতকে হয়রানি ও জালিয়াতি করার অভিযোগে বিচারক নিজেই বাদী হয়ে মিথ্যা মামলা দায়েরকারী বাদী নজর আলীর বিরুদ্ধে ফৌজদারী কার্যবিধি আইনে ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান আইনজীবী মোফাজ্জেল হোসেন ও খান হাফিজুর রহমান বাবু।

মানবকণ্ঠ/আইএইচ






ads