রোহিঙ্গা শিবিরে ভয়াবহ আগুন, ৫ শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই

- ছবি: সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:২২,  আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:৩৬

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা শিবিরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পাঁচ শতাধিক ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাত ৩টার দিকে উপজেলার নয়াপাড়ার নিবন্ধিত রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের ই ব্লকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডে নিহত হওয়ার কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তবে আগুন নেভাতে গিয়ে কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিক তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

টেকনাফ ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ২ ঘণ্টা চেষ্টার পর বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। তবে এরই মধ্যে ক্যাম্পটির ‘পাঁচ শতাধিক’ ঘর সম্পূর্ণ পুড়ে যায়।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে আগুনের সূত্রপাতের কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।

টেকনাফ ফায়ার সার্ভিসের দলনেতা মুকুল কুমার নাথ গণমাধ্যমকে বলেন, রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন লাগার সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। তবে কেউ বলছেন গ্যাসের চুলা থেকে, আবার কেউ বলছেন লাকড়ির চুলা থেকে, আবার কারও মতে সিগারেটের আগুন থেকে আগুনের সূত্রপাত। শিবিরের ৪৮টি শেডের (প্রতিটি শেডে ৮টি করে পরিবার) ও ১৩০টি ঝুপড়ি ঘরসহ ৫১৪টি বসতঘর আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আগুন লাগার কারণ জানা যাবে এবং প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতি নির্ধারণের কাজ চলছে।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads