পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্ত্রীকে নির্যাতন, কলেজশিক্ষক গ্রেফতার


poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ২১:৩৩,  আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:২৮

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে ফারুক হোসেন নামে একজন কলেজ শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ভোর রাতে উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের কিসামত চন্দ্রপুর গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

গ্রেফতার কলেজ শিক্ষক ওই গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে। তিনি কালীগঞ্জ উপজেলার দুহুলী টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের মানব সম্পদ বিভাগের প্রভাষক।

আদিতমারী থানার এস আই খন্দকার মাহমুদ জানান, গত ১৫ মাস আগে একই উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের গোবদা গ্রামের রিতা খাতুনকে বিয়ে করেন কলেজ শিক্ষক ফারুক হোসেন। বিয়ের কিছুদিন পর এক সহকর্মীর সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন ফারুক হোসেন। স্বামীর পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হন স্ত্রী রিতা খাতুন।

সম্প্রতি পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় কলেজ শিক্ষক ফারুক তার স্ত্রী রিতাকে বেধম মারপিট করেন। স্থানীয়রা রিতাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় গৃহবধূ রিতা বাদি হয়ে স্বামী ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) আদিতমারী থানায় একটি মামলা(নং-৩) দায়ের করেন। এ মামলায় পরদিন শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ভোর রাতে অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে কলেজ শিক্ষক ফারুক হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়।

আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।






ads