মাগুরায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ নারীসহ নিহত ৩


poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:২৩,  আপডেট: ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ২০:৩৬

মাগুরায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় স্বর্ণলতা মজুমদার (২৫) ও সাথী মজুমদার (২৭) নামে দুই গৃহবধূ ও আহাদ আলি মোল্যা (৬০) নামে এক পল্লী চিকিৎসক নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) তারা দুর্ঘটনার শিকার হন।

মাগুরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জয়নাল আবেদীন জানান, শালিখার থৈপাড়া গ্রামের মিল্টন মজুমদারের স্ত্রী স্বর্ণলতা, ভাইয়ের স্ত্রী সাথী মজুমদারকে নিয়ে একটি অটো করে মাগুরা সদর উপজেলার রামনগর এলাকায় এক নিকটাত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে তারা মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের ঠাকুরবাড়ি এলাকায় পৌঁছে অটো থেকে নেমে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এ সময় ঢাকাগামী সবজি বোঝাই একটি ট্রাক অন্য একটি অটোকে সাইড দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার উপর উল্টে যায়। এতে ট্রাকের নীচে চাপা পড়ে স্বর্ণলতা, সাথী এবং একই পরিবারেরদুই শিশু সেতু (৭) ও অপর্ণা (১৩) গুরুতর আহত হয়।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক স্বর্ণলতাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আহত সাথীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। আহত সেতু মজুমদার ও অপর্না মজুমদারকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি এলাকার একটি বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে তারা নিজ গ্রামে ফেরার আগে মাগুরার রামনগর স্বর্ণলতার ফুফু বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু পথেই তারা দুর্ঘটনার শিকার হন বলে জানান নিহত স্বর্ণলতার স্বামী মিল্টন মজুমদার।

অন্যদিকে আহাদ আলী মোল্যা (৬০) নামে এক পল্লী চিকিৎসক শুক্রবার সকালে মোহম্মদপুর উপজেলার রাজাপুর এলাকায় নছিমনের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। তার বাড়ি নড়াইল জেলার লোহাগাড়া এলাকায়।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads